জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছর সশ্রম কারাদণ্ডপ্রাপ্ত সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারান্তরীণ। সেই হিসাবে আজ তিন মাস পূর্ণ হলো। তবে নির্জন কারাগারে শারীরিক সমস্যা মারাত্মক ভোগাচ্ছে বিএনপির শীর্ষনেত্রীকে। তিনি ভালো নেই বলে একাধিকবার অভিযোগ করেছেন দলের নেতারা। আজ মঙ্গলবার হাইকোর্টে তার জামিন শুনানি রয়েছে। দলীয় প্রধানের মুক্তির দাবিতে বিএনপির বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীকে আজ আদালত প্রাঙ্গণে উপস্থিত থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্র থেকে।

দলীয় নেতারা জানান, পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন সড়কে পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের একমাত্র বন্দি খালেদা জিয়া বইপুস্তক ও পত্রিকা পড়ে সময় কাটাচ্ছেন। এখন শারীরিক সমস্যায় প্রচণ্ড অসুস্থ তিনি। বলছেন তারা। তবে মনোবল হারাননি।

বিএনপি চেয়ারপারসনের ব্যক্তিগত চিকিৎসক নিউরো মেডিসিনের প্রফেসর ডা. ওয়াহিদুর রহমান সম্প্রতি সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, খালেদা জিয়ার ঘাড়ের হাড়গুলো ক্ষয় হয়ে সেখানে নার্ভ (স্নায়ু) চাপা পড়ে গেছে। বাম হাতে শক্তি পাচ্ছেন না, সারাক্ষণই ব্যথা। আগে থেকে তিনি আর্থ্রাইটিসে আক্রান্ত। আঙুলগুলো ফোলা। কোমরের হাড়গুলো ক্ষয় হয়ে সেখানে স্পাইনাল কর্ড চাপা পড়ে গেছে। তার হাত অবশ হয়ে যেতে পারে। তিনি অন্ধ হয়ে যেতে পারেন।

গত শনিবার আইনজীবীরা দেখা করতে গেলে খালেদা জিয়া তাদের বলেন, ‘আমি অসুস্থ, আদালতে বলবেন।’ কারাগার থেকে বেরিয়ে এসে আইনজীবী রেজ্জাক খান বলেন, ‘জেলে স্যাঁতসেঁতে পরিবেশে থাকার কারণে দিন দিন তার স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটছে। মেডিকেল গ্রাউন্ডে জামিন দিয়েছে হাইকোর্ট, এটা সর্বোচ্চ আদালতে উপস্থাপনের জন্য তিনি আমাদের বলেছেন।’

এদিকে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সোমবার সারা দেশের বার সমিতিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম। সুপ্রিমকোর্টে অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে দলটির কেন্দ্রীয় নেতারা আশা প্রকাশ করেন, খালেদা জিয়া মঙ্গলবার জামিন পাবেন। ন্যায়বিচার ও আইনের শাসন সমুন্নত রাখতে বিচার বিভাগ ভূমিকা রাখবে বলেও প্রত্যাশা তাদের।

বিভিন্ন সূত্র বলছে, খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেওয়া চার মাসের জামিন আদেশের পর তার কারামুক্তিতে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে বেশ কিছু আইনি প্রক্রিয়া। সেসব প্রক্রিয়া শেষে কবে নাগাদ খালেদা জিয়া জামিনে মুক্তি পেতে পারেন, সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত নন তার আইনজীবীরা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here