সমকামিতায় জোর করায় ক্ষুব্ধ হয়ে রাজধানীর দক্ষিণখানের ব্যবসায়ী মনির হোসেনকে খুন করা হয় বলে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে দুই খুনি। গত সোমবার রাতে ময়মনসিংয়ের ফুলপুর থেকে রঙমিস্ত্রি মো. মেহেদী হাসান (২৪) ও মো. আকিকুল ইসলামকে (২২) এ ঘটনায় গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের কাছ থেকে মনিরের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটিও উদ্ধার করা হয়। গতকাল হত্যার দায় স্বীকার করে দুই যুবক আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের গণমাধ্যম বিভাগের সহকারী কমিশনার (এসি) সুমন কান্তি চৌধুরী জানান, দক্ষিণখানের দেওয়ানবাড়ী এলাকার ১৪৩ নম্বর বাসার পঞ্চম তলায় থাকতেন মনির হোসেন। তিনি জায়গা-জমির ব্যবসার পাশাপাশি উত্তরার হাউজ বিল্ডিং এলাকায় গাড়ির যন্ত্রাংশ বিক্রি করতেন। ছিল সুদের ব্যবসাও।

গত ২৮ এপ্রিল তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে খুনিরা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে নিজ ঘর থেকে দিগম্বর অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। হত্যাকা-ের পরদিন দক্ষিণখান থানায় একটি মামলা হয়। থানা পুলিশের পাশাপাশি মামলাটির ছায়া তদন্তে নামে ডিবি উত্তরের বিমানবন্দর জোনাল টিম।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় মনির হোসেনের বাসার দারোয়ান জসিম উদ্দিন বাবুকে জিজ্ঞাসাবাদে তিনি হত্যাকা-ের কথা স্বীকার করেন। জসিম জানান, তারা তিনজন মিলে মনিরকে হত্যা করেছেন। পরে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে ময়মনসিংহ থেকে মেহেদী ও আকিকুলকে গ্রেপ্তার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানিয়েছেন, ঘটনার দিন ভিকটিম মনির গ্রেপ্তার মেহেদী ও আকিকুলকে অনৈতিক প্রস্তাব দেন। রাজি না হয়ে বাধা দিলে তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। এক পর্যায়ে তারা শ্বাসরোধে মনিরকে হত্যা করেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here