ধরা যাক, বয়সে প্রায় ২০ বছরের ছোট তরুণীকে আপনার পছন্দ হয়েছে। তার কথা বলা, তার ভাবনা বা লেখায় আপনি মুগ্ধ। নিয়মিত চ্যাটও করেন। কিন্তু, মুখোমুখি কফি খেতে গিয়ে আড্ডা… পাঁচ পা এগোলে দশ পা পিছিয়ে আসছেন। তবে জেনে রাখা জরুরি মেয়েটি নিজে কতটা ইচ্ছুক আপনার সঙ্গে কথা বলতে?

অনেক মেয়ে কিন্তু নিজের থেকে বয়সে বড় ছেলেদের প্রেমে পড়েন। কেন সে আপনার প্রেমে পড়ল আপনি বিত্তবান? আপনি ভালো কথা বলতে পারেন? কিন্তু আপনার সঙ্গে একটা জেনারেশন গ্যাপও তো থাকবে। যদিও প্রেম কোনো বয়স মানে না। তবুও প্রেমের জোয়ারে ভাসার আগে দেখে নিন কী কী জানা জরুরি…

মেয়েটি কী আপনার সঙ্গে টাইম পাস করছে?
হতে পারে আপনি আগের প্রেমে ‘ব্যথা’ পেয়েছেন! সেই ক্ষত ভুলতেই আবার নতুন করে প্রেমে পড়েছেন। কিন্তু, যার প্রেমে পড়েছেন, তিনি কি আদৌ আপনাকে পছন্দ করেন? নাকি আপনার পকেট খসিয়ে দিব্যি কফি আর পাস্তা খাওয়ার তাল করেছে।

ওনলি মানি.. নো হানি?
আগেই বললাম মেয়েরা কিন্তু ‘হানির চেয়ে মানি’ বেশি পছন্দ করে। যদি আপনার ‘মানি-ব্যাঙ্কে জোর থাকে আর আপনিও সঙ্গীর অভাবে ভোগেন, তাহলে হাঁটার সময় পিছনে কাউকে ‘ঘুরঘুর’ করতে দেখতেই পারেন। টাকা থাকলে ভালোবাসাকে সহজেই ‘ম্যানেজ’ দেয়া যায়।

জেনারেশন গ্যাপ
আপনি যার প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন সে হয়তো আপনার থেকে ২৫ বছরের ছোট। তাই আপনি যদি বলেন, চলো একসঙ্গে বসে ভক্তি-গীতি শুনি। উত্তর অপছন্দের হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। নিজেই কল্পনা করে নিন।

প্রেমের স্বর্ণযুগ ফিরে পেতে চান
আপনি যখন কলেজে পড়তেন তখন হয়তো বান্ধবীকে নিয়ে বড়জোর বোটানিক্যাল গার্ডেন পর্যন্ত গিয়েছিলেন। তাই নতুন বান্ধবীর সঙ্গে সম্পর্কে যাওয়ার আগে নিজেকেও তৈরি করুন। এটাও জরুরি। নতুন টেকনলজি, গান, সিনেমা, অ্যাপ নিয়ে রীতমতো চর্চা করে পা বাড়াল স্বস্তি পাবেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here