ফ্রান্সের প্যারিসে ‘পালারিস দি টোকিও’ নামের একটি আর্ট গ্যালারি। গত ৫ মে এক প্রদর্শনীতে নগ্নতাবাদীদের প্রবেশের অনুমতি দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

জামা-কাপড় নির্দিষ্ট ঘরে খুলে রেখে তারপর গ্যালারি পরিদর্শন করেন তারা। অন্যান্য দর্শনার্থীর জন্য বিব্রতকর পরিস্থিতি এড়াতে সেদিন নির্ধারিত সময়ের আগেই জাদুঘরটি খুলে দেয়া হয়। খবর সিএনএন।

প্যারিসের কোনো জাদুঘর কর্তৃপক্ষ এই প্রথম নগ্নতাবাদীদেরকে কোনো প্রদর্শনীতে প্রবেশের অনুমতি দিলো।

গত বছর প্যারিসের বইস ডি ভিনসেনেস পার্কেও নগ্নতাবাদীদের জন্য আলাদা জায়গার ব্যবস্থা করেছিল পার্কটির কর্তৃপক্ষ, যেটি বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় এবার জাদুঘরেও একই উদ্যোগ নেয়া হলো।

৫ তারিখের প্রদর্শনীতে অংশ নেয়া নগ্ন দর্শনার্থীরা স্থানীয় ‘ল্য পারিসিয়ান’ পত্রিকাকে জানান, প্রদর্শনীটি তাদের খুব ভালো লেগেছে।

একজন বলেন, ‘পরিবেশটা ছিল চমৎকার। প্রথমে একটু বিব্রতকর লেগেছে। কিন্তু নগ্ন অবস্থায় শিল্পকে আপনি ভিন্নভাবে অনুভব করতে পারবেন।’

ফ্রান্সে আনুমানিক ২৬ লাখ নগ্নতাবাদী আছেন। প্যারিসে তাদের সক্রিয় সংগঠনও আছে। তাদের জন্য আলাদা সুইমিং পুল, ব্যায়ামাগার ও খেলাধুলার ব্যবস্থাও আছে।

নগ্নতাবাদীদের জীবনের অভিজ্ঞতা নিতে চায় এমন পর্যটকদের জন্য ‘ন্যাচারিস্টবিএনবি’ নামে একটি হাউস শেয়ারিং সার্ভিস চালু আছে, যেখানে থাকতে হলে জামা-কাপড় পরার বাধ্যবাধকতা নেই। অতিথিরা ইচ্ছা করলে নগ্ন অবস্থায় এসব বাসাবাড়িতে ভাড়া থাকতে পারবেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here