বগুড়া সদরের গোকুল ইউনিয়নের চাঁদমুহা আশ্রয়ন প্রকল্প গ্রামের এক তরুণীর সাথে একই উপজেলার নামুজা বগার পাড়ার যুবকের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। শুধু তাই নয় বিয়ের প্রলোভনে তাদের মধ্যে দৈহিক সম্পর্ক হয়।

চাঁদমুহা আশ্রয়ন প্রকল্পের সভাপতি শোভা বেগম জানান, তার আশ্রয়ন প্রকল্পে বসবাসকারী মৃত দিলবর আলী ফকিরের মেয়ে সুমি আকতারের (২২) সাথে নামুজা ইউনিয়নের বগার পাড়া গ্রামের মকবুল হোসেন শেখ এর ছেলে রিপন মিয়া শেখের (২৫) সাথে ৭/৮ মাস ধরে মোবাইলে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর রিপন বিয়ের প্রলোভনে মেয়েটির সাথে দৈহিক সম্পর্ক স্থাপন করে।

গত (৭ মে) সোমবার রিপন শেখ সুমি আক্তারকে বিয়ে করবে এই প্রলোভনে মোবাইলে ফোনে তাকে ডেকে নেয় নামুজা চৌমোহনী বাজার এলাকায়। এসময় তাকে বিয়ে করে ঘরে তোলার জন্য বলে সুমি। তবে মেলামেশা শেষে রিপন কৌশলে পালিয়ে যায়। পরে সুমি আকতার রিপন শেখের বাড়িতে বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিয়ের দাবিতে অনশন করলে ঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পরে।

নামুজা ইউনিয়নের ৪নং ওর্য়াড সদস্য ফারুক হোসেন বিষয়টি গোকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সওকাদুল ইসলাম সরকার সবুজ ও নামুজা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম রাসেল মামুনকে জানান।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here