কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, ‘আমি ১৬ বছর নির্বাসন কাটিয়ে যেদিন ঢাকায় ফিরেছিলাম, সেদিন যত মানুষ হয়েছিল, বাংলাদেশের ইতিহাসে বিমানবন্দরে এত মানুষ হয় নাই। সেদিন শেখ হাসিনা আমাকে জড়িয়ে ধরে হাউমাউ করে কেঁদেছিলেন। আর সেই শেখ হাসিনা মানুষকে চেনেন না, জানেন না, তাঁর কাছে মানুষের কোনো মূল্য নেই।’

বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার হতেয়া কাজীপাড়া ছালাফিয়া মাদ্রাসা মাঠে হাতীবান্ধা ইউনিয়ন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ আয়োজিত জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘আমি নেতা হওয়ার জন্য মুক্তিযুদ্ধ করিনি। আজকে যে সংগ্রাম করি, এমপি বা মন্ত্রী হওয়ার জন্য করি না। জিয়াউর রহমান আমাকে বারবার মন্ত্রী বানাতে চেয়েছিলেন। সে প্রস্তাবও গ্রহণ করিনি। এরশাদ অনেকবার মন্ত্রী বানাবার চেষ্টা করেছিলেন। আমি বলেছি, আপনার সঙ্গে আমার মন্ত্রী হওয়া চলবে না।’

তিনি বলেন, ‘কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের বলেছিলেন রাজাকারের বাচ্চা। আমি যদি প্রধানমন্ত্রী হতাম, এক ঘণ্টার মধ্যে মতিয়া চৌধুরীকে মন্ত্রিসভা থেকে বের করে দিতাম।’

হাতীবান্ধা ইউনিয়ন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি হুমায়ুন খানের সভাপতিত্বে দলটির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান, জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক এ টি এম সালেক, উপজেলা কমিটির সভাপতি আতাউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মীর জুলফিকার প্রমুখ বক্তব্য দেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here