মাদারীপুর থেকে ভারতে দেহ ব্যবসার কাজে স্ত্রীকে পাচারের সময় স্বামী নিখিল বেপারীকে আটক করেছেন র‌্যাব-৮ মাদারীপুর ক্যাম্পের সদস্যরা। শুক্রবার মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার ভুরঘাটা এলাকা থেকে নিখিলকে আটক করা হয়।

সে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার জয়সিরকাঠি এলাকার নীলকান্ত বেপারীর ছেলে নিখিল বেপারী।

র‌্যাব সূত্রে জানা যায়, মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার কর্ণপাড়া এলাকার বাসিন্দা ওই নারীকে এক বছর আগে ভারতের বিহারের একটি যৌনপল্লীতে ৮০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেয় তার স্বামী নিখিল। সেখানে তাকে দিয়ে জোরপূর্বক পতিতাবৃত্তি, অশ্লীল ভিডিও এবং পর্নো ছবি তৈরি করা হতো। সুযোগ পেয়ে ছয় মাস পর ওই নারী সেখান থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে চলে আসেন।

এরপর তার স্বামী নিখিল বেপারী বাংলাদেশে এসে তাকে ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে শিশুসন্তানসহ পুনরায় ভারতে পাচারের জন্য নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

শুক্রবার দুপুরে মাদারীপুরে ভূরঘাটা এলাকা থেকে যশোরের বেনাপোলগামী গাড়িতে উঠলে ওই নারী কৌশলে মোবাইল ফোনে র‌্যাবকে খবর দেন। র‌্যাব সেখানে গিয়ে পাচারকারী নিখিল বেপারীকে আটক করে এবং শিশুসন্তানসহ ওই নারীকে উদ্ধার করে।

র‌্যাব-৮ মাদারীপুর ক্যাম্পের কমান্ডার অ্যাডিশনাল এসপি তাজুল ইসলাম জানান, জিজ্ঞাসাবাদে নারী পাচারকারী নিখিল বেপারী তার স্ত্রীকে ভারতের পতিতালয়ে বিক্রি করার কথা স্বীকার করেছে। তার বিরুদ্ধে মাদারীপুরের কালকিনি থানায় মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে একটি মামলা করা হয়েছে বলে জানান এই র‌্যাব কর্মকর্তা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here