স্পেনের বার্সেলোনা শহরের এক ব্যক্তি পরিবারকে ‘অশুভ শক্তি’ থেকে রক্ষা করতেই নিজ মেয়ে (১৫) ও তার দুই বান্ধবীকে ধর্ষণ করেছেন বলে আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন।

ধর্ষণের জন্য ‘ওডিন’ (পৌরাণিক দেবতা) তাকে নির্দেশনা দিয়েছেন বলে জেভিয়ার জি ডি নামের ওই ব্যক্তি জানান।

গতকাল সোমবার ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ধর্ষণের সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন জেভিয়ারের স্ত্রীও। মেয়ের ওপর যৌন নির্যাতনে বিরুদ্ধে সে সময় কোনো পদক্ষেপ নেননি তিনি। এমনকি মেয়ে ও তার বান্ধুবীর কাছে কেমন লেগেছে বলে অনুভূতিও জানতে চান ওই নারী।

আদালতে জেভিয়ার জানান, যদি তিনি এই কাজটি না করতেন তবে পরিবারের সদস্যরা অভিশপ্ত হতেন। এদিকে নিজের বাড়িতেও কয়েক দফা কিশোরীদের ধর্ষণ করেছেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, বৃহস্পতিবার আইনজীবীরা জেভিয়ারের ৪৫ বছরের কারাদণ্ডের দাবি করে। এ সময় তার স্ত্রীর নয় বছরের জেলের দাবিও জানান তারা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here