উত্তরপ্রদেশের পুলিশ কনস্টেবল ধর্মেন্দ্র সিংহ। সম্প্রতি তিনি লখনৌর অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের কাছে ছুটি চেয়ে একটি চিঠি লিখেছেন। ওই চিঠির এক অংশে ধর্মেন্দ্র লিখেন, ছুটি দিন না হয় বউ ছেড়ে চলে যাবে। খবর পিটিআই।

চাকরি থেকে ছুটি না পাওয়ায় স্ত্রীর আবদার মেটাতে পারেন না ধর্মেন্দ্র। স্ত্রীর সঙ্গে দেখা হয়নি তার প্রায় চার মাস।

উত্তরপ্রদেশের লখনৌ পুলিশ কনস্টেবল ধর্মেন্দ্র সিংহ সদ্য বিয়ে করেছেন। তার পোস্টিং হচ্ছে আগরা রোডের শাহগঞ্জে। সম্প্রতি লখনৌর অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে ছুটি চেয়ে একটি চিঠি লিখেছেন ধর্মেন্দ্র।

চিঠিতে ধর্মেন্দ্র লিখেন, আমার নতুন বিয়ে হয়েছে। আমার সব সময়ই স্ত্রীর কথা মনে পড়ে। ফলে কাজে মন দিতে পারি না। আমার বাড়ি যাওয়া দরকার।

ছুটির আবেদনে ধর্মেন্দ্র লিখেন, স্ত্রীর সঙ্গে দেখা হয়নি চার মাস। কারণ, আমি ছুটি পাইনি। আমাকে যদি ছুটি না দেয়া হয় তাহলে হয়তো আমার স্ত্রী ছেড়ে চলে যাবে। ও চাইছে আমি ১০ দিন পর বাড়ি যাই। স্ত্রী বলেছে, আমি যদি ১০ দিন পর পর বাড়ি না যাই, তাহলে যাওয়ার দরকার নেই। এই চিঠি দেয়ার পরই ৮ দিনের ছুটি পেয়েছেন ধর্মেন্দ্র সিংহ।

রাজ্যের এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, একজন কনস্টেবল সাধারণভাবে বছরে ৩০ দিন ছুটি পান। তাদের প্রতি সপ্তাহে একদিন করে ছুটি পাওয়ার কথা। সব জেলার পুলিশ বিভাগের প্রধানরা ছুটি মঞ্জুর করেন। কিন্তু কাজের চাপের জন্য সবাই ছুটি পান না।

উল্লেখ্য, কনস্টেবলদের মনোবল বাড়ানোর জন্য নানা ব্যবস্থা নিচ্ছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। ডিজিপি নিজে তাদের ভালো কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ পুরস্কার দিচ্ছেন। যে পুলিশ সদস্যরা টানা ১০ দিন কাজ করেন, তাদের একদিন ছুটি দেয়ার নিয়ম চালু করা হয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here