বাংলাদেশের রোহিঙ্গা শিবিরগুলোতে প্রতিদিন প্রায় ৬০টি শিশুর জন্ম হয়। বুধবার জাতিসংঘের শিশুবিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানিয়েছে।

বিবৃতে বলা হয়, গত বছরের আগস্ট থেকে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশ অভিমুখে রোহিঙ্গাদের রোহিঙ্গা ঢল শুরুর পর কক্সবাজারের ক্যাম্পগুলোয় এ পর্যন্ত ১৬ হাজার শিশুর জন্ম হয়েছে। এর মধ্যে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে জন্ম হয়েছে মাত্র তিন হাজার শিশুর।

ইউনিসেফের বাংলাদেশের প্রতিনিধি এডুওয়ার্ড বেইগবেদার বলেছেন, ‘প্রতিদিন প্রায় ৬০টি শিশু ভয়ঙ্কর পরিবেশের মধ্য দিয়ে দুনিয়ার মুখ দেখছে। তাদের প্রয়োজনীয় সাহায্য ও সহযোগিতা নিশ্চিত করতে হবে। যে মা তাদের জন্ম দিচ্ছে তারাও নানা সংকটের মধ্যে রয়েছেন।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের প্রতিবেদনে বাংলাদেশের একজন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, রোহিঙ্গা শিবিরে ১৮ হাজার ৩০০ জন গর্ভবতী নারীকে শনাক্ত করা হয়েছে। তবে সব মিলিয়ে সেখানে এমন ২৫ হাজার নারী রয়েছেন।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে জাতিগত নিধনযজ্ঞ শুরুর পর থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসাদের মধ্যে একটা বড় অংশই শিশু। এছাড়া জীবন ও সম্ভ্রম বাঁচাতে পালিয়ে গর্ভবতী অবস্থায় দেশ ছেড়ে পালিয়ে এসেছেন বহু রোহিঙ্গা নারী। সূত্র: রয়টার্স।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here