দেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ এর সঙ্গে গাজীপুর ও রাঙ্গামাটির বেতবুনিয়ার দুই গ্রাউন্ড স্টেশনের সংযোগ স্থাপন ও নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার জন্য শুক্রবার বাংলাদেশে আসছেন নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান ফ্রান্সের থ্যালেস অ্যালেনিয়া স্পেসের বিজ্ঞানীরা।

জানা গেছে, মহাকাশে পাড়ি দেওয়ার পর পর বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ইতালি এবং কোরিয়ার তিনটি গ্রাউন্ড স্টেশন। এই তিন স্টেশন থেকে স্যাটেলাইটটিকে নিয়ন্ত্রণ করে এর নিজস্ব কক্ষপথে (১১৯.১ পূর্ব দ্রাঘিমাংশে অরবিটাল স্লট) নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট তার গন্তব্যে পৌঁছাতে আরও অন্তত দুই দিন সময় নেবে।

স্যাটেলাইটটি তার কক্ষপথে পৌঁছানোর পর শুরু হবে বাংলাদেশের গাজীপুর ও রাঙ্গামাটির বেতবুনিয়ায় স্থাপিত দুই গ্রাউন্ড স্টেশনে সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের কাজ। এ কাজ সরাসরি তদারকি করবেন স্যাটেলাইট নির্মাণে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান ফ্রান্সের থ্যালেস অ্যালেনিয়া স্পেসের বিজ্ঞানীরা। গাজীপুর ও বেতবুনিয়ায় দুই দলে ভাগ হয়ে তারা কাজ করবেন। তাদেরকে সহায়তা করবেন বাংলাদেশের তরুণ ১৮ বিজ্ঞানী।

বিষয়টি ফ্রান্সের থ্যালেস অ্যালেনিয়া স্পেসের ওয়েবসাইট সূত্রেও নিশ্চিত হওয়া গেছে। তারা বলছেন, ‘উপগ্রহটি ১১৯.১ পূর্ব দ্রাঘিমাংশের কক্ষপথে পৌঁছানোর জন্য সাত থেকে দশ দিন সময় লাগবে। এরপর কয়েক দিন ধরে পরীক্ষার (আইওটি) মধ্য দিয়ে যাওয়ার পর উপগ্রহটিকে পর্যায়ক্রমে বেতবুনিয়া ও গাজীপুর গ্রাউন্ড স্টেশনের সঙ্গে সংযুক্ত করা হবে।

এদিকে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের নিয়ন্ত্রণ নিতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছে গাজীপুর ও রাঙ্গামাটির বেতবুনিয়ার দুই গ্রাউন্ড স্টেশন। এ লক্ষ্যে শিগগিরই গ্রাউন্ড স্টেশন দুটি উদ্বোধন করা হবে বলে জানা গেছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here