লন্ডন রাজপরিবারের যে কোনো অনুষ্ঠান মানেই নারীদের এক বাড়তি উত্তেজনা। নিজেদের প্রদর্শনের একটা সুযোগ। তবে সেটা পোশাক বা মেকআপে নয়, হ্যাটে। আমন্ত্রিত নারীরা প্রত্যেকেই মাথায় রাজকীয় হ্যাট পরেন, যার বেশির ভাগই দেখতে অদ্ভুত।

গেল শনিবার লন্ডনের উইনসরে প্রিন্স হ্যারি এবং মেগান মার্কেলের বিয়েতেও তার ব্যতিক্রম ছিল না। নারী অতিথিরাই রাজকীয় হ্যাটে অনুষ্ঠানের শোভা বাড়িয়ে দেন। যুবরাণী মেগান মার্কেলের বন্ধু হিসেবে সেখানে উপস্থিত ছিলেন হলিউড অভিনেত্রী প্রিয়ঙ্কা চোপড়া, তার মাথায় ছিল ফিলিপ ট্রেসির হ্যাট। অনুষ্ঠানে স্বামী অ্যালেক্সিসের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সেরেনা উইলিয়ামসও। গোলাপি হ্যাট ছিল তার মাথাতেও। এটা ব্রিটিশ রাজপরিবারের একটা রীতি।

বিবিসির প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, রাজপরিবারের নারীদের মাথার চুল কখনই যাতে দেখা না যায়, তার জন্য বহুদিন ধরেই চলে আসছে এ ব্যবস্থা। এটাই রাজপরিবারের রীতি। আর সেই চুল ঢাকতেন হ্যাট দিয়ে। যেহেতু রাজপরিবার, তাই বংশের পরম্পরা কখনও বর্জন করা হয় না। তাই হ্যাট পরার চল এখনও রয়ে গেছে। তবে সময়ের সঙ্গে শুধু বদলেছে স্টাইল। মাথা ঢাকা হ্যাটের পরিবর্তে রয়্যাল পরিবারের সদস্য এবং অতিথিদের মাথায় শোভা পায় রকমারি স্টাইলিশ হ্যাট। তবে এগুলোতে থাকে ঐতিহ্যের ছোঁয়া।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here