না, জিনিস চুরি করেন না দিপিকা পাড়ুকোন। তিনি নাকি ফ্যাশন চোর! বিভিন্ন সময় নানা অনুষ্ঠানে নায়িকাকে এমন কিছু পোশাকে দেখে গিয়েছে, যা তিনি হুবহু কপি করেছেন কোনও হলিউড বা বলিউড অভিনেত্রীর। তবে এবার সেই সীমা ছাড়লেন তিনি। এবার কান উৎসবের লাল গালিচায় তিনি নাকি হাঁটলেন অন্যের স্টাইলে!

কান উৎসবের তৃতীয় দিনে গোল্ডেন শিমার গাউনে রেড কার্পেটে আবেদনে ছড়িয়ে ছিলেন দিপিকা। সবাই এক বাক্যে স্বীকার করেছিলেন, এদিন প্যারিসের হটকেক ছিলেন বলিউড সুন্দরী। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ার কল্যাণে নিমেষে প্রশংসা বদলালো নিন্দায়। অনেকেই নিন্দা করে বলছেন, দিপিকা আসলে চোর। তিনি সবসময়ই অন্যের ফ্যাশন চুরি করেন।

বলা হচ্ছে, কানে দিপিকা যে গোল্ডেন গাউনটি পরেছিলেন, তেমনি এক পোশাক পরে ২০১৬-এর সেপ্টেম্বরে ভোগ ম্যাগাজিনে ফটোশ্যট করেছিলেন ইন্টারন্যাশনাল এক রিয়ালিটি স্টার! দু’জনের পোশাকের একটাই ফারাক, রিয়ালিটি স্টারের পোশাকটি দৈর্ঘে সামান্য খাটো। আর দিপিকার গাউনের ঝুল তুলনায় বেশি।

দিপিকার সেই গাউন মিলে যায় অন্যের সঙ্গেও

আবার এই একই গাউন পরে কান চলচ্চিত্র উৎসবে হাজির ছিলেন ডাচ ফ্যাশন মডেল রোমি স্ট্রিজড। রংটাই শুধু আলাদা। যদিও এই নকলনবিশির পিছনে দিপিকার কোনো হাত নেই। রোমি ও দিপিকার এই পোশাকটি ডিজাইন করেছেন ফ্যাশন ডিজাইনার আলবার্টা ফেরেট্টি। একই ডিজাইনারের হাতে পড়ে, দু’জনের পোশাক একই রকম হয়ে গিয়েছে।

এই অভিযোগের পাশাপাশি আরও একটি কারণে বিব্রত দিপিকা। হাতে কাজ নেই নায়িকার৷ যদিও সেটা প্রেমিক রনবির সিংয়ের সঙ্গে বিয়ের জন্য বা তার কাঁধে চোটের জন্য নয়৷ ইদানিং নাকি স্ক্রিপ্ট নিয়ে দারুণ খুঁতখুঁতে হয়ে পড়েছেন নায়িকা৷ ফলে, মনমতো কোন চিত্রনাট্যই খুঁজেই পাচ্ছেন না৷ দিপস এখন শুধুই নারীকেন্দ্রিক ছবি করতে আগ্রহী। এবং লক্ষ্য একটাই, নায়কের চরিত্র যেন তাকে ছাপিয়ে না যায়৷

হঠাৎ এই পরিবর্তন কেন দিপিকার? অনেকের মতে, এর জন্য পরোক্ষভাবে দায়ী পরিচালক সঞ্জয়লিলা বনসালি এবং অভিনেতা রনবীর সিং৷ সঞ্জয়ের শেষ ছবির নাম ‘পদ্মাবত’ হলেও ছবিতে দাপট দেখিয়েছেন রনবির৷ এরপরেই নাকি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সুন্দরী৷

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here