সুপারম্যান, ব্যাটম্যান বা ফ্যান্টম। কদাচিৎ মহাজাগতিক ফ্লাশ গর্ডনও। দুনিয়া কাঁপানো এই সুপারহিরোদের স্টাইলই হলো প্যান্ট বা লেগিংসের উপরে অবলীলায় জাঙ্গিয়া পরে থাকা। পথে-ঘাটে এমন পোশাকে কাউকে দেখলে আমরা হেসে লুটোপুটি খাব। কিন্তু মহাতারকাদের বেলায় এমন পোশাকই স্বাভাবিক। কেন চালু হল এমন বিচিত্র স্টাইল? সুপারহিরোদের জাঙ্গিয়া পরার বিচিত্র অভ্যেসের কারণ কি পৌরুষের প্রকাশ, না জমকালো ছাপা?

তিরিশের দশক থেকে বিভিন্ন চরিত্রের কস্টিউম ডিজাইনের মধ্যে এই প্রবণতা ধরা পড়তে থাকে। কারণ এর পিছনে একাধিক বলেই মনে করা হয়। অনেকে যেমন বলেন, ছাপার প্রযুক্তিরও বড় ভূমিকা রয়েছে। সেই সময়ে সস্তায় ঝকঝকে ছাপা হওয়া সহজ কথা ছিল না। সাদা-কালো বা রংচঙে— যেমনই হোক, নানা সমস্যা দেখা দিত। সেসব এড়াতেই সচেতন থাকতে হতো ডিজাইনের ক্ষেত্রে। সাদামাটা ডিজাইনেও চরিত্রটিকে আকর্ষণীয় করে তুলতে, ‘লার্জার দ্যান লাইফ’ দেখাতে, এমন বিবিধ কৌশল প্রয়োগ করতে হতো। প্যান্টের উপরে জাঙ্গিয়া চাপিয়ে দেওয়া হয়তো তেমনই এক প্রয়াস।

আবার শারীরিক দক্ষতা ও পৌরুষের দিকটিও ধরা পড়ে এই ধরনের পোশাক-ব্যবহারে। কারণ সুপারহিরোকে যে হতেই হবে ‘সুপার-মাসকুলিন’! তার অন্তর্বাসও তাই থাকবে আর পাঁচটা মানুষের চোখের উপরে— দিনের আলোর মতো স্পষ্ট।

জাঙ্গিয়া পরা সুপারহিরো-সুপার হিরোয়িনরা

তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সম্ভাবনাটির কথা বলেন ডিসি কমিকসের দীর্ঘদিনের সম্পাদক জুলিয়াস শোয়ার্ৎজ। তার মতে, বিশ-তিরিশ দশকের কুস্তিগির ও সার্কাসের ট্র্যাপিজ খেলোয়াড়দের খাটো ও টাইট পোশাকের অনুকরণেই সুপারম্যানের এই পোশাকের শুরু। আমাদের চোখেও সার্কাসের এমন দৃশ্য খুব অচেনা নয়। অমন অ্যাক্রোব্যাটিক স্কিলও তো সুপারহিরোদের অন্যতম বৈশিষ্ট্য! তাই তাদের পোশাক হিসেবেও প্যান্টের উপরে অন্তর্বাসের ঠাঁই পেতে সমস্যা থাকল না।

বাংলা ভাষায় সারা বিশ্বের কমিকস নিয়ে গবেষণা করেন পশ্চিমবঙ্গের কৌশিক মজুমদার। সুপ্যারম্যানের পোশাকের প্রসঙ্গে তিনি সার্কাসের থিয়োরিকেই সমর্থন করছেন। তা থেকেই বাকি সুপারহিরোদের মধ্যে এই প্রবণতা ছড়িয়ে গিয়েছে। তার বক্তব্য, প্যান্টের উপরে জাঙ্গিয়া পরার প্রবণতাও ডিসি কমিকসে যতটা, মার্ভেল কমিকসের ক্ষেত্রে ততটা নয়। চরিত্রগুলি সিনেমায় দেখানোর ক্ষেত্রেও তা লক্ষণীয় ভাবে কমছে। বছর দুয়েক আগের ‘ব্যাটম্যান ভার্সেস সুপারম্যান: ডন অফ জাস্টিস’ ছবিতেই যেমন ব্যাটম্যান বা সুপারম্যান, কারও ক্ষেত্রেই প্যান্টের উপরে কোনো অন্তর্বাস নেই। খবর এবেলার।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here