বিশ্বকাপে জার্মানি ভক্ত মাগুরার আমজাদ হোসেন আন্তর্জাতিকভাবেও বেশ পরিচিত। গত বিশ্বকাপের সময় তিন কিলামিটার দৈর্ঘ্যের জার্মান পতাকা তৈরি করে সারা বিশ্বের ফুটবল ভক্তদের মধ্যে হইচই ফেলে দিয়েছিলেন। এবার রাশিয়া বিশ্বকাপে নিজের সেই রেকর্ডকেও ছাড়িয়ে গেছেন তিনি। এবার আমজাদ হোসেন তৈরি করিয়েছেন সাড়ে ৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের জার্মান পতাকা।

৫৫ বছর বয়সী আমজাদের বাড়ি মাগুরা সদর উপজেলার ঘোড়ামারা গ্রামে। তিনি জানান, গত বিশ্বকাপে তিন কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের জার্মান পতাকা তৈরি করতে জমি বিক্রি করেছিলেন। এবার তার স্বপ্ন আরো বড়। ইতিমধ্যে প্রিয় দলের প্রায় সাড়ে পাঁচ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের পতাকা তৈরি করেছেন তিনি। তবে তার স্বপ্ন এই পতাকার দৈর্ঘ্য হবে ২২ কিলোমিটার।

গতবছর আমজাদের তৈরি সাড়ে তিন কিলোমিটারের জার্মান পতাকা মাগুরা স্টেডিয়ামে প্রদর্শন করা হয়

গত বিশ্বকাপের সময় জার্মানি ভক্ত আমজাদের কীর্তি দেখে স্বয়ং তার বাসায় ছুটে গিয়েছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত। আনুষ্ঠানিকভাবে আমজাদকে জার্মানি ফ্যান ক্লাবের সম্মানিত সদস্য করেও নেন। মাগুরা স্টেডিয়ামে পতাকাটি প্রদর্শনের মাধ্যমে তাকে সংবর্ধনাও দেওয়া হয়।

আমজাদ বলেন, ‘কিছু পাওয়ার জন্য নয়, জার্মান ফুটবলের প্রতি ভালোবাসা থেকেই এই পতাকা বানিয়েছেন তিনি। গত বার জমি বিক্রি করে তিন কিলোমিটার দীর্ঘ পতাকাটি তৈরি করেছি আড়াই লাখ টাকায়। এবার নিজের টাকা, কিছু ধারদেনা করে এটির দৈর্ঘ্য বৃদ্ধি বাড়িয়েছি। মেহেরপুরে এর কাজ চলছে। আগামী ৫ জুন ঘোড়ামারা স্কুল মাঠে এটি প্রদর্শন করা হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমার স্বপ্ন ২০২২ সাল পর্যন্ত বেঁচে থাকা। যদি থাকি তবে মাগুরা থেকে যশোর সীমান্ত পর্যন্ত ২২ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের একটি জার্মান পতাকা প্রদর্শন করবো ওই বিশ্বকাপে।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here