চলে গেলেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও টিভি উপস্থাপক তাজিন আহমেদ। মঙ্গলবার বিকেল ৪টা ৩৫ মিনিটে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার মৃত্যুর পর থেকে সাবেক স্বামী ছোট পর্দার পরিচালক এজাজ মুন্নার ভূমিকা নিয়ে।

এজাজ মুন্নাকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন তাজিন আহমেদ। তবে বেশিদিন টেকেনি তাদের সংসার। এজাজ মুন্নার বিরুদ্ধে মাদকাসক্তি ও পরনারী আসক্তির অভিযোগ তোলায় তাদের সংসারে ফাটল ধরে। এরপর তাজিন বিয়ে করেন এক মিউজিশিয়ানকে।

এদিকে জানা যায়, তাজিন আহমেদের এজমার সমস্যা ছিল। হার্টের কোনো সমস্যা ছিল বলে কারও জানা ছিল না। হঠাৎ করেই দুপুর ১২টার দিকে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হন।

তবে তাজিনের আকস্মিক মৃত্যুতে তার সাবেক স্বামীর কোনো হাত রয়েছে কিনা তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অনেকের। বিষয়টিকে রহস্যজনকও মনে করছেন অনেকে। তার মৃত্যুর বিষয়টিকে খতিয়ে দেখার জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে অনুরোধ জানিয়েছেন তাজিনের শুভাকাঙ্ক্ষীরা।

অভিনয়শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিম বলেন, মৃত্যুর আগে তাজিনকে ইলেক্ট্রিক শক দিয়েও রাখা হয়েছিল। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না। ৪টা ৩৫ মিনিটে তাজিন আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন।

তাজিন আহমেদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর করে ভোরের কাগজ, প্রথম আলোসহ বিভিন্ন পত্রিকায় সাংবাদিকতা করেন। আনন্দ ভুবন ম্যাগাজিনের কলামিস্টও ছিলেন তিনি। পরে মার্কেন্টাইল ব্যাংকে পাবলিক রিলেশন অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। মায়ের হাত ধরেই অভিনয় জগতে প্রবেশ করেন অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ। মা দিলারা জলির ছিল প্রোডাকশন হাউজ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here