হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ। গতকাল বিকেল চারটা ৩৪ মিনিটে উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

মৃত্যুর আগে পরিবারের কাউকে পাশে পাননি তাজিন। এমনকি মাকেও পাশে পাননি তাজিন। তার মা’র সন্ধান করলে প্রথমে জানা যায় কোন এক বিদ্ধাশ্রমে রয়েছেন তিনি। এদিকে আজ জানা যায় বর্তমানে কারাগারে আছেন তাজিনের মা।

তাই তাজিন আহমেদকে শেষবারের মতো বিদায় দিতে আসতে পারেননি তার মা, তাই তাজিন নিজেই গেলেন লাশ হয়ে মায়ের কাছে। বুধবার (২৩ মে) সকালে কাশিমপুর কারাগারে নিথর মেয়েকে দেখেন তিনি।

তাজিনের মা চেক ডিজঅনার মামলায় গত দুই বছর ধরে কারাগারে রয়েছেন। তাই মেয়েকে শেষ দেখার জন্য আসতে পারেননি। এজন্য তাজিন আহমেদের মরদেহ অ্যাম্বুলেন্সে করে কাশিমপুর কারাগারের মূল ফটকে নিয়ে যাওয়া হয়। তখন শেষবারের মতো দেখা হয় মা-মেয়ের।

কাশিমপুর থেকে তাজিনের মরদেহ নিয়ে আসা হয় গুলশানের আজাদ মসজিদে। এখানে বাদ জোহর তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন শোবিজের তারকা থেকে সাধারণ মানুষেরাও। এরপর তার মরদেহ বনানীর উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হয়। বনানী কবরস্থানে তার বাবার কবরেই দাফন করা হবে তাজিন আহমেদকে।

উল্লেখ্য, জনপ্রিয় এ অভিনেত্রীর ফেসবুকের শেষ স্ট্যাটাস ছিল, ‘মা পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ উপহার’।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here