সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘মাদক ব্যবসায় উখিয়া-টেকনাফ আসনে ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে, তার বেয়াই আকতার কামাল যেমন ছাড় পায়নি, তেমনি শুধু বদি নয়, যে কোন মাদক ব্যবসায়ী, সে আওয়ামী লীগ, বিএনপি বা অন্য কোন দলের, যারা যারা জড়িত, কেউ রেহাই পাবে না।’

ঈদকে সামনে রেখে সাভারের আশুলিয়ায় সড়কের উন্নয়ন কাজের পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ‘মাদকের বিরুদ্ধে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চলমান অভিযানকে জনগণ স্বতস্ফুর্তভাবে স্বাগত জানিয়েছে।’ কেবলমাত্র রাজনৈতিকভাবে মতলববাজরা এ অভিযানের সমালোচনা করছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘মাদকের সাথে অস্ত্র, কালো টাকা সবই জড়িত। এই মাদক আগামী প্রজন্মকে ধ্বংস করছে।’

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে এমন অসংখ্য অভিযানের উদাহরণ টেনে মন্ত্রী বলেন, ‘মাদক ব্যবসায়ীরা শক্তিশালী। অভিযান চলাকালে তারা আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যদের গুলি করবে, আর পুলিশ কি তখন জুঁই ফুলের গান গাইবে?’

ভারতে গিয়ে তিস্তার পানি বণ্টনসহ দুই দেশের অমীমাংসিত বিষয়গুলোর অগ্রগতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কী করেছেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন প্রশ্নের জবাবে বিএনপির ভূমিকার কঠোর সমালোচনা করেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘ফখরুল সাহেব কারা? যারা ভারতে গিয়ে লাল কার্পেটের সংবর্ধনা নিয়ে ঢাকায় ফিরে সাংবাদিকের বলেছিলো, গঙ্গার পানি নিয়ে কথা বলতেতো ভুলেই গিয়েছিলাম। কিন্তু আমরা ভুলে যাইনি। আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি হিসেবে আমরা সম্প্রতি ভারতে গিয়েও এ ব্যাপারে কথা বলেছি।’

আজকেও মমতা ব্যানার্জীর সাথে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক আছে। আমার বিশ্বাস চুক্তি যেকোন সময়ে হতে পারে। চুক্তি হবেই। কারণ এই সফর থেকে বেশ অগ্রগতি হয়েছে বলে জানান তিনি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here