সাপের বিষ যে কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে তা আবার প্রমাণ হয়েছে ভারতের উত্তর প্রদেশের একটি গ্রামে। সেখানে এক নারীকে ঘুমের ঘোরে কামড় দেয় একটি বিষাক্ত সাপ। কিন্তু তখনো সেই নারী টের পাননি মৃত্যু তার আশপাশে ঘুরঘুর করছে। সকালে একটু শরীর খারাপ নিয়েই তিনি বুকের দুধ পান করান নিজের তিন বছর বয়সী মেয়েকে।

এতে মায়ের শরীরে থাকা বিষে আক্রান্ত হয় ছোট্ট শিশুটিও। কিন্তু যখন এটি তারা বুঝতে পারেন ততক্ষণে সব শেষ। হাসপাতালে নেওয়ার আগেই মা-মেয়ে দু’জনেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা বিজয় সিং বলেন, হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই মা-মেয়ের মৃত্যু হয়। লাশের ময়নাতদন্ত করা হবে। দুর্ঘটনায় মৃত্যু হিসেবে একটি মামলা নথিভুক্ত করা হয়েছে।

এ ঘটনার পর পরিবারের সদস্যরা সাপটিকে পাশের ঘরে দেখতে পেয়েছিলেন। পরে সাপটি পালিয়ে যায়।

আমেরিকান সোসাইটি অব ট্রপিকাল মেডিসিন অ্যান্ড হাইজিনের ২০১১ সালের গবেষণায় দেখা গেছে, ভারতে মোট ৩০০ প্রজাতির সাপ রয়েছে। এর মধ্যে কোবরা, ক্রেইটসহ ৬০টি প্রজাতি অত্যন্ত বিষধর। সারা বিশ্বে প্রতিবছর সাপের দংশনে মৃত্যুর ঘটনা প্রায় এক লাখ। এর মধ্যে ৪৬ হাজার মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ভারতে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here