রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলা হচ্ছে না লিভারপুলের মিশরীয় স্ট্রাইকার মোহাম্মদ সালাহর। ইজিপশিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে ঘনিষ্ট সম্পর্ক থাকা সৌদি আরব ক্রীড়া কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান তুর্কি আল শেখ এমন দাবি করেছেন।

শনিবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে কাঁধে চোট নিয়ে অশ্রুসিক্ত নয়নে মাঠ ছাড়েন সালাহ। ম্যাচের ২৮ মিনিটে তার বাহু ঝাপটে ধরে ফেলে দেন রিয়াল মাদ্রিদ ডিফেন্ডার সার্জিও রামোস। ম্যাচ শেষে লিভারপুল কোচ জার্গেন ক্লুপ দাবি করেন যে সালাহর চোট গুরুতর। এক্স-রে রিপোর্টের পর জানা যায় যে ২৫ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডের কাঁধের হাড় সরে গেছে।

মিশরের ফুটবল সংস্থা শনিবার রাতেই এক টুইটার বার্তায় আশা ব্যক্ত করে যে সালাহ বিশ্বকাপে খেলতে পারবেন। তারা লিভারপুলের ডাক্তারের সঙ্গে টেলিফোনে কথার বরাত দিয়ে জানায় যে সালাহর কাঁধের লিগামেন্ট মচকে গেছে। ফলে রাশিয়া বিশ্বকাপে তাকে পাওয়ার সম্ভাবনা আছে।

তবে সালাহর কাঁধের চোট সারতে কত দিন লাগবে- সেটা এখনও স্পষ্ট না। ২০১০-১১ মৌসুমে লিভারপুলের সাবেক ডিফেন্ডার জেমি কারাঘের একই সমস্যা কারণে দুমাস মাঠের বাইরে ছিলেন। ফলে সালাহর ক্ষেত্রেও সেটা ঘটলে বিশ্বকাপে খেলা হবে না তার।

আর ফেইসবুকে তুর্কি আল শেখ বলেন, ‘অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে বলতে হয় যে আমারে বৃহৎ আরবের তারকা মোহাম্মদ সালাহ চোটের কারণে দুমাস মাঠের বাইরে থাকবেন। ফলে তিনি বিশ্বকাপ খেলতে পারবেন না।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here