মসজিদে ৫ জনকে অচেতন করে নগদ টাকা, মোবাইলসহ কয়েক লাখ টাকার মালামাল নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে জুনায়েদ হোসেন নামে এক তাবলীগ সদস্যের বিরুদ্ধে। গতকাল সকালে মাগুরায় মার্কাজ মসজিদে এ ঘটনা ঘটে।

অচেতন ৫ জনকে মসজিদ থেকে উদ্ধার করে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তাবলিগের এক সদস্য সাইদুল ইসলাম জানান, শুক্রবার রাতে তারা ঢাকার কাকরাইল মসজিদ থেকে ১৬ জনের একটি দল (জামাত নম্বর-৬৮৮৮) নিয়ে ৪০ দিনের সফরের জন্যে মাগুরা মার্কাজ মসজিদে আসেন।

রাতের খবার শেষে মসজিদে অধিকাংশরা ঘুমিয়ে পড়লে রাত পৌনে ১১টার দিকে ওই জামাতের নতুন সঙ্গী জুনায়েদ হোসেন একটি ফ্রুটো জুসের সঙ্গে চেতনানাশক দ্রব্য মিশিয়ে সুরুজ হোসেন (৭০), জাহাঙ্গীর আলি কিবরিয়া (৩০), মিনহাজ উদ্দিন (২৩), রায়হান (২০) ও সাইফুল মুন্না (২০) নামে ৫ জনকে খাওয়ান। কিছুক্ষণ পরে তার অচেতন হয়ে পড়লে তাদের সঙ্গে থাকা নগদ অর্থ ও মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়।

এদিকে মাগুরা মার্কাজ মসজিদে অবস্থানরত অন্যান্যরা মধ্যরাতে রোজার সাহরি খেতে ঘুম থেকে উঠলেও তারা অচেতন অবস্থায় ঘুমিয়ে থাকতে দেখে সন্দেহ হয়। পরে বিষয়টি বুঝতে পেরে ভোরে অচেতন অবস্থায় ৫ জনকে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জুনায়েদ হোসেনের বাড়ি সিলেট এবং তিনি ঢাকার কাকরাইল মসজিদ থেকে এই জামাতের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয় বলে তাবলিগ সদস্য সাইদুল ইসলাম জানান।

সদর থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন জানান, অভিযুক্ত যুবককে আটকের চেষ্টা চলছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here