ছবির প্রয়োজনে একাধিক নায়িকার ‘মুখে আগুন’ জ্বলতে দেখা গেছে সিনেমার পর্দায়। পরে তারা স্বেচ্ছায় নিজেদের ছেড়ে দিয়েছেন নেশার হাতে। কেউ অবসাদ ভুলতে ধূমপান করেন। কেউ টেনশন চাপতে। করা এই দলে? চোখ রাখুন সেদিকে—

দিপিকা পাডুকোন: ভক্তরা শুনলে অবাক হবেন, নিয়মিত ধূমপান করেন দিপস! ঘনিষ্ঠ মহল জানাচ্ছে, রনবীর কাপুরের সঙ্গে ব্রেকআপের পর ধূমপানের নেশা শুরু নায়িকার। অনেক চেষ্টা করেও এই নেশা থেকে আজও মুক্ত করতে পারেননি নিজেকে।

মনিষা কৈরালা: একসময়ের নামি অভিনেত্রী মনিষা কৈরালাও নাকি সারাক্ষণ ধূমপানের নেশায় বুঁদ হয়ে থাকতেন। সঙ্গে আরও অনেক নেশা ছিল তার। ক্যানসার ধরা পড়ার পর এই কু-অভ্যাসের দিকে পা বাড়ান না তিনি।

আমিশা প্যাটেল: ‘কাহো না পেয়ার হ্যায়’ ছবি দিয়ে বলিউডে পা রেখেছেন আমিশা প্যাটেল। তারপর আর সেভাবে বলিউডে সাফল্যের মুখ দেখেননি তিনি। সেই অবসাদে ভুগেই মারাত্মকভাবে ধূমপান করতে শুরু করে দেন আমিশা। এখনো সেই ধারা বজায় রেখেছেন।

কঙ্গনা রানাওয়াত: একাধিক বলিউড ছবিতে ধূমপানরত অবস্থায় দেখা গিয়েছে কঙ্গনাকে। ব্যক্তিগত জীবনেও নাকি কঙ্গনা চেইন স্মোকার! মেজাজ খারাপ থাকলেই ঠোঁটের ডগায় ঝুলতে দেখা যায় সিগারেট।

কঙ্কনা সেন শর্মা: কঙ্গনা সেন শর্মা ঘনিষ্ঠদের কাছে স্বীকার করেছেন, তিনি ধূমপান করতেন। এই মারণ নেশা থেকে নিজেকে মুক্ত করবারও অনেক চেষ্টা নাকি করেছেন। কিন্তু ব্যর্থ হয়েছেন তিনি।

রানি মুখার্জি: বলিউডে ধূমপানের ফার্স্ট গার্ল নাকি রানি। নায়িকার নাকি দিন শুরু হয় না সিগারেট ছাড়া!

সুস্মিতা সেন: ধূমপানে বহুদিনের আসক্তি সুস্মিতা সেনের। বহুবার শ্যুটিং এর সময় সিগারেটের প্যাকেট সঙ্গে নিয়ে ঘুরতে দেখা গিয়েছে তাকে। চেইন স্মোকার হিসাবেও তিনি পরিচিত। যদিও বহুদিন ধরেই তিনি এই কু-অভ্যাস ছাড়ার চেষ্টা করছেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here