আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী মনোনয়ন নিয়ে কিছু চমক আছে। তবে বিশ্বকাপের আগে নির্বাচন-রাজনীতি নিয়ে সাকিব ও মাশরাফির কোনো কথা নেই।’

বৃহস্পতিবার ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। সভায় দলের সম্পাদকমণ্ডলীর অধিকাংশ নেতা উপস্থিত ছিলেন।

গত ২৯ মে মঙ্গলবার দুপুরে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছিলেন, ‘মাশরাফি নির্বাচন করবেন, ভোট দিয়েন। নড়াইল থেকে নির্বাচন করবে মাশরাফি। তিনি ভালো মানুষ। তাকে ভোট দিয়েন। তবে কোন দল থেকে নির্বাচন করবেন সেটি বলব না। সাকিবেরও বয়স হয়েছে। তিনিও নির্বাচন করতে পারেন। তিনি করলে আপনারা দু’জনকেই সহায়তা করবেন।’

এ বিষয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘সাকিব আর মাশরাফির ব্যাপারে আমরা এই মুহূর্তে কোনো মন্তব্য করতে চাই না। সাকিবের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। বিশ্বকাপের আগে নির্বাচন নিয়ে, রাজনীতি নিয়ে তাদের কোনো কথা নেই।’

জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের মনোনয়ন দেয়ার বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিশ্বকাপের পরেই দেখা যাবে তারা কে কে নির্বাচন করবেন? কীভাবে করবেন, কোন আসন থেকে করবেন? এগুলো আলাপ–আলোচনার পর্যায়ে চলছে। বিশ্বকাপের আগে তারা মনস্থির করেননি।’

মাশরাফি-সাকিব কোন বিশ্বকাপের পর প্রার্থী হবেন, এ প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, কোনো বিশ্বকাপের কথা নির্দিষ্ট করে তারা উল্লেখ করেননি।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের মে মাসে আগামী বিশ্বকাপ ক্রিকেট হওয়ার কথা রয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here