লক্ষ্মীপুরে এক ছাত্রলীগ নেতার সঙ্গে গৃহবধূর বিবস্ত্র ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবি করেছে ভুক্তভোগী পরিবার।

বৃহস্পতিবার (৩১ মে) দুপুরে জেলা শহরে সংবাদ সম্মেলন করে এই দাবি জানানো হয়।

এদিকে, ওই নারীকে জড়িয়ে বিবস্ত্র ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় স্থানীয় গ্রাম-পুলিশ আলাউদ্দিনসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত আরও ১০ জনকে আসামি করে বুধবার (৩০ মে) দুপুরে লক্ষ্মীপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রলীগ নেতা রাকিবুল হাসান বিপ্লবসহ গৃহবধূ ও তার স্বামী বলেন, ‘ভবানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের এক গ্রাম-পুলিশ আলাউদ্দিন দীর্ঘদিন থেকে গৃহবধূকে উত্ত্যক্ত করত। গৃহবধুর স্বামী বিষয়টি লোকজনকে জানালে এতে প্রতিশোধ হিসেবে ছাত্রলীগ নেতা রাকিবুল হাসানসহ গৃহবধূকে জড়িয়ে বিবস্ত্র ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করে।

২৬ মে রাত ৮টার দিকে কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান বিপ্লবসহ গৃহবধূর জামা-কাপড় ছিঁড়ে অর্ধ বিবস্ত্র করে। একপর্যায়ে তারা দুজনকে পাশাপাশি বসিয়ে মোবাইল ফোনে ছবি ও ভিডিও ধারণ করে। পরে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়।’ এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে বিচারের দাবি করেছেন তারা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here