দীর্ঘদিন ধরেই নেত্রকোনা সদরের সাকুয়া বাজার এলাকায় গন্ধবপুর গ্রামের মৃত পুলিশ সদস্য রঈছ উদ্দিনের ছেলে মাহবুব আলমের সঙ্গে তার স্ত্রী রোজিনা আক্তারের ঝগড়া চলছিল। এ নিয়ে একাধিকবার সালিশ বৈঠকও হয়েছে।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত স্বামী মাহবুবের উপর প্রতিশোধ নিতে গিয়ে বৃদ্ধ শাশুড়ি শাহানারা আক্তারের গায়ে আগুন দেন রোজিনা। এতে মারাত্মক দগ্ধ হন ওই বৃদ্ধা।

অবশেষে বৃহস্পতিবার চিকিঃসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মারা যান শাহানারা।

নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি মো. বোরহান উদ্দিন খান জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে রোজিনা তার শাশুড়ির শরীরে গত শুক্রবার রাতে আগুন ধরিয়ে দেয়। দগ্ধ শাহানারাকে প্রথমে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতাল ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হয়। ঘটনার সময় শাহানারার শরীরের ৭০ ভাগ পুড়ে যায়।

এ ঘটনায় দগ্ধ শাহানারার মেয়ে ফারজানা আক্তার লিজা বাদি হয়ে থানায় মামলা করলে রোজিনা আক্তারকে গত শনিবার আটক করে পুলিশ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here