ঈদুল ফিতর উপলক্ষে কমলাপুর রেল স্টেশনে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি আজ সকাল থেকে শুরু হয়েছে। যা চলবে ৬ জুন পর্যন্ত। স্টেশন থেকে জানানো হয়েছে, কাউন্টারে প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত টিকিট বিক্রি হবে। আর ফিরতি টিকিট দেওয়া হবে ১০ থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত। একজন যাত্রী সর্বোচ্চ চারটি টিকিট কিনতে পারবেন।

কমলাপুর রেল স্টেশন ম্যানেজার সীতাংশু চক্রবর্তী জানান, ঈদে ট্রেনে যাত্রী সেবা নিশ্চিত করতে সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে মন্ত্রণালয়। আর সবাইকে লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট নিতে হবে। একই সঙ্গে সবাইকে টিকিট দেওয়া সম্ভব না।

গতকাল রাতে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, রাতেই টিকিটের জন্য লাইন স্টেশনের বাইরে চলে গেছে। কেউ পত্রিকা বিছিয়ে শুয়ে আছেন। আবার দলবদ্ধভাবে অনেকেই তাস খেলছিলেন।

কুড়িল থেকে আসা জাকির নামে এক তরুণ বলেন, ‘ইফতারির পরই চলে এসেছি। কষ্ট করে টিকিট পেলে কি যে ভালো লাগে তা বোঝাতে পারবো না। এ বড়ই আনন্দের।’

তার মতো অনেকেই নানা মন্তব্য করছিলেন। আর কোনো ধরনের কালোবাজারি যেন না হয় সেজন্য র‌্যাব, পুলিশ ও সরকারের গোয়েন্দারা নজরদারি করছেন।

কাউন্টারম্যানরা জানান, শুক্রবার ১ জুন দেওয়া হবে ১০ জুনের টিকিট। ২ জুন দেওয়া হবে ১১ জুনের, ৩ জুন দেওয়া হবে ১২ জুনের, ৪ জুন দেওয়া হবে ১৩ জুনের, ৫ জুন দেওয়া হবে ১৪ জুনের এবং ৬ জুন দেওয়া হবে ১৫ জুনের ট্রেনের টিকিট।

আর ফিরতি টিকিট ১০ জুন দেওয়া হবে ১৯ জুনের টিকিট, ১১ জুন ২০ জুনের, ১২ জুন দেওয়া হবে ২১ জুনের, ১৩ জুন দেওয়া হবে ২২ জুনের, ১৪ জুন দেওয়া হবে ২৩ জুনের এবং ১৫ জুন দেওয়া হবে ২৪ জুনের টিকিট।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here