ল্যাপটপ চালানো শেখার জন্য মন্ত্রীদের ছয় মাস সময় বেঁধে দিয়েছেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা অলি। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কোনো মন্ত্রী এতে ব্যর্থ হলে, তাকে পদচ্যুত করা হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।

কাঠমান্ড পোস্টের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়া ডটকম জানায়, নেপালের জাতীয় শিক্ষকদের সংগঠনের ১২তম সাধারণ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মন্ত্রিপরিষদের কেউ যদি ল্যাপটপ চালাতে না পারে, তাহলে তাকে পদচ্যুত করা হবে।’

অলি বলেন, ‘আমি ইতোমধ্যে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে বলেছি, আমি ছয় মাসের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী দপ্তরকে কাগজবিহীন করবো। বৈঠকের প্রোগ্রাম ও আলোচ্যসূচি ল্যাপটপ ব্যবহার করে ঠিক করা হবে।’ এ সময় নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ল্যাপটপ চালানো শিখতে সহকারীদের কাছ থেকে সহযোগিতা নেওয়ারও পরামর্শ দেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘ছয় মাসের মধ্যে কেউ ল্যাপটপ চালানো শিখতে না পারলে, আমরা তাকে বিদায় জানাব। এ সময় তাকে একটা ল্যাপটপ দেব, যাতে করে তিনি পরবর্তী মেয়াদের জন্য ল্যাপটপ চালানো শিখতে পারেন। আমার সরকারের লক্ষ্য নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নেপালকে তথ্যপ্রযুক্তি বান্ধব দেশে পরিণত করা।’

গত ফেব্রুয়ারিতে দ্বিতীয় মেয়াদে নেপালের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন কেপি শর্মা অলি। সেই সময়ই তিনি বলেছিলেন, ‘ছয় মাসের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর কাগজবিহীন করা হবে।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here