চট্টগ্রামে সৎ মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে মোহাম্মদ মজিদ (৪৯) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার (২ জুন) রাতে ধর্ষণের অভিযোগে মজিদের বিরুদ্ধে মামলার পরই তাকে গ্রেফতার করা হয়।

শুক্রবার ওই কিশোরী অসুস্থ হলে তার মা তাকে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যায়। তখন কিশোরীর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয়টি ধরা পড়লে ঘটনা প্রকাশ হয়ে যায়।

ওই মেয়ে অভিযোগ করেছে, ধর্ষণের কথা কাউকে বললে মা ও মেয়েকে মেরে ফেলার হুমকি দিত মজিদ।

গ্রেফতার কাভার্ডভ্যান চালক পিতা মোহাম্মদ মজিদ (৪৯) বিগত ৬ মাস ধরে তার কিশোরী সৎ মেয়েকে ধর্ষণ করে আসছিল। ১৬ বছর বয়সী ওই কিশোরী শনিবার (২ জুন) তার সৎ বাবাকে আসামি করে নগরীর সদরঘাট থানায় একটি মামলা করে। মামলার এজাহারে ৬ মাস ধরে ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগ করা হয়।

সদরঘাট থানার ওসি নেজাম উদ্দিন জানান, আসামি মোহাম্মদ মজিদ (৪৯) নগরীর মোগলটুলি এলাকায় কাটা বটগাছ মোড়ে ভাড়া বাসায় স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে থাকেন। তার গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে। মজিদ ওই কিশোরীর মাকে বিয়ে করেন ১০-১২ বছর আগে। বিয়ের পর ওই কিশোরীও মজিদের পরিবারের সঙ্গেই থাকতো। তার মা বিভিন্ন বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করেন। মায়ের অনুপস্থিতিতে ১৬ বছর বয়সী মেয়েকে মজিদ ভয় দেখিয়ে গত বছরের ডিসেম্বর থেকে বিভিন্ন সময়ে নিজ ঘরে ধর্ষণ করে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here