নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার লালপুর এলাকার ছয় তলা একটি বাড়ির নাম এখন সবার মুখে মুখে ফিরছে। সবাই একে ডাকছে ‘ব্রাজিল বাড়ি’ নামে। কারণ পুরো বাড়িটিই রাঙিয়ে তোলা হয়েছে ব্রাজিলের পতাকায়। বিশ্বকাপ ফুটবলের উন্মাদনায় এই কাজ করেছেন ব্রাজিল ভক্ত বাড়িটির মালিক জয়নাল আবেদিন টুটুল। তার এই ব্রাজিল প্রিতির কথা মিডিয়ার মাধ্যমে এরইমধ্যে ছড়িয়ে গেছে পুরো দেশেতো বটেই এমনকি আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও।

ফলে এরইমধ্যে আজ টুটুলের ডাক পড়েছে ঢাকাস্থ ব্রাজিল দূতাবাসে। শোনা যাচ্ছে সেখানে নাকি তাকে সংবর্ধনাও দেওয়া হবে। তার সঙ্গে একান্তে কথা বলবেন ব্রাজিলের উপ-রাষ্ট্রদূত জুলিও সিজার।

টুটুল জানান, ২০১০ সালের বিশ্বকাপের সময় প্রথম নিজের বাড়ি সাজিয়ে ছিলেন। সে সময় তার বাড়িটি ছিল দোতলা। কিন্তু সেসময় কোয়াটার ফাইনালেই ব্রাজিল হেরে যাওয়ায় তার মন ভেঙ্গে যায়। কিন্তু তারপরও ব্রাজিলের প্রতি টুটুলের ভালোবাসা একটুও কমাতে পারেনি। আগের বাড়ি ভেঙ্গে এখন ছয়তলা বানিয়েছেন। তাই এবার পুরো বাড়িটি ব্রাজিলের পতাকার রঙে রঙ করিয়েছেন তিনি।

ফতুল্লার লালপুরে সেই ব্রাজিল বাড়ি

স্থানীয় এক ‍যুবক বলেন, আমিও ব্রাজিলের সমর্থক। বাইরে যখন নিজ এলাকার পরিচয় দেই সবাই ‘ব্রাজিল বাড়ি’র কথা জিজ্ঞাস করে। এই বাড়িটির জন্য আজ আমাদের এলাকা নতুন পরিচয় পেয়েছে। টুটুল ভাই ব্রাজিল সমর্থকদের চোখে আইডল। এলাকাবাসী হিসেবে তার জন্য আজ আমারা গর্ববোধ করি।

যদিও পাড়া-প্রতিবেশীদের ভেতর প্রতিপক্ষ দলের সমর্থকরা প্রথমে এ ব্রাজিল প্রীতি ভালো চোখে দেখেনি জানিয়ে টুটুলের ছেলে আব্দুল কাদের শান্ত জানান, বর্তমানে অনেকে এলাকার নাম ঠিকমত না জানলেও ব্রাজিল বাড়ির নাম ভালভাবেই জানে।

তিনি বলেন, তৈরির পর অনেকেই বাড়িটি নিয়ে অনেকেই ভিন্ন ধরনের কথা বলতো। এতো টাকা খরচ ও রং ব্যবহারের নিন্দুকরা নানা মত দিয়েছেন। আমি যখন স্কুলে যাই ফেরার পথে রিক্সাওয়ালাকে ব্রাজিল বাড়ির কথা বললেই নিয়ে আসে। আশেপাশে এলাকা ছাড়ও আজ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে এটি নিয়ে কথা হচ্ছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here