সুরের প্রতি এমন টান সত্যিই বিরল। সম্প্রতি ভারতের ব্যাঙ্গালুরুর ভগবান মহাবির জৈন হাসপাতালে মাথায় জটিল অপারেশনের সময় সজ্ঞানে গিটার বাজিয়ে চিকিৎসকদের চমকে দিয়েছেন তাসকিন ইবনে আলী নামে এক বাংলাদেশি যুবক। তার মাথায় যখন চিকিৎসকরা কাটা-ছেঁড়ায় ব্যস্ত তখন তাসকিন গিটারে তুলেছেন অবাক করা সুর।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ফক্স নিউজ শনিবার বাংলাদেশের এই বিস্ময়কর যুবক সম্পর্কে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, অদ্ভুত এই ঘটনা ঘটেছে গত ১৭ মে। ওইদিন দীর্ঘ সময় চিকিৎসকদের জটিল অপারেশনের মধ্যেই ৩১ বছর বয়সী তাসকিনের হাত ছিল সক্রিয়। ডাক্তারদের চুলচেরা বিশ্লেষণের ম্যারাথন অস্ত্রোপচারের গোটা সময়ই সজ্ঞানে গিটার বাজিয়ে গেছেন।

জানা যায়, সঙ্গীতের প্রতি দুর্বল তাসকিন গত ৫ বছর ধরে বাম হাতের আঙ্গুলের অসারতার সমস্যায় ভুগছিলেন। পেশায় কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার তাসকিন গানের প্রতি ভালোবাসায় ২০০৮ সালে চাকরিটাও ছেড়ে দেন। কিন্তু ৫ বছর আগে মস্তিষ্কের বিরল রোগে আক্রান্ত হয়ে বাম হাতের আঙ্গুলের কর্মক্ষমতা হারাতে বসেন। পরে পরীক্ষা করে দেখা যায় তাসকিন ‘ডিসটোনিয়া’ নামে এক ধরনের রোগে আক্রান্ত। তার হাতের তিনটি আঙুল কর্মক্ষমতা হারানোর পর অস্ত্রোপচারের পরামর্শ দেন ডাক্তাররা।

এ বিষয়ে ড. শারান শ্রীনিবাসন জানান, আঙুলের পেশির অনিয়ন্ত্রিত ও অত্যধিক ব্যবহারের ফলেই এই সমস্যা শুরু হয়েছে। যখনই পেশির অতিরিক্ত ব্যবহার হচ্ছে, আঙুল আর কাজ করছে না।

এরপরই তারা অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন। সার্জারি করে মস্তিষ্কের কিছু অংশ পুড়িয়ে দিতে হবে বলে জানান চিকিত্‍সক দল। কিন্তু ঠিক কোনো জায়গায় সমস্যা রয়েছে, তা জানার জন্য অস্ত্রোপচারের সময় গিটার বাজাতে বলা হয় তাসকিনকে।

অস্ত্রোপচারের সময়ও গিটার বাজানোর ফলে মস্তিষ্কের সমস্যাজনিত অংশগুলোকে সহজেই চিহ্নিত করতে পারেন চিকিত্‍সকরা। অপারেশনের পর তাসকিন সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here