পারিবারিক কলহের জেরে রাজধানীর হাজারীবাগে দিনেদুপুরে দুলাভাই শাহাদাৎকে (৪০) কুপিয়েছে তারই শ্যালক সোহেল। পরে তাকে গুরুতর আহতাবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, শাহদতের বুকের মাঝখানে, বাম পাশে এবং তলপেটে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তলপেটে ছুরিকাঘাতের কারণে তার নাড়িভুঁড়ি বের হয়ে গেছে।

স্থানীয়রা জানান, শাহাদাত পেশায় লেগুনা চালক। লালবাগ নবাবগঞ্জ সেকশনের পুলিশ ফাঁড়ির বাঘফুল গলিতে থাকেন। তার বাবার নাম মৃত আলাউদ্দিন।

সোমবার দুপুর ১টার দিকে শাহাদাৎকে তার শ্যালক সোহেল এলোপাথাড়ি ছুরিকাঘাত করে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে পাঠায়। শাহাদাৎ জানান, দীর্ঘদিন ধরে সোহলের সঙ্গে পারিবারিক দ্বন্দ্ব ছিল। তাই একা পেয়ে সে ছুরিকাঘাত করেছে।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া জানান, শ্যালকের ছুরিকাঘাতে শাহাদাৎ গুরুতর আহত হয়ে ওয়ার্ডে ভর্তি আছেন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ঘটনার পর হাজারীবাগ থানা পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। পাশাপামি আসামিকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here