চালক ও হেলপার হিসেবে নারীদেকে চান সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এজন্য বিআরটিসি চেয়ারম্যানকে নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি। কারণ হিসেবে মন্ত্রী সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ঢাকায় এক জরিপে তিনি দেখেছেন পুরুষের তুলনায় নারীর সংখ্যা বেশি। নারীদের চলাচলও বেশি। যে কারণে গাড়িতে চালক ও হেলপার নারী দরকার।

মঙ্গলবার বিআরটিসি প্রধান কার্যালয়ে গিয়ে নারী গাড়ি চালক নিয়োগ দিতে বলেন ওবায়দুল কাদের।

গত বছরেও নারী গাড়ি চালকের পক্ষে জোর দিয়ে কথা বলেছিলেন তিনি। সেসময় তিনি বলেছেন, ‘ছেলেদের মাথা গরম থাকে। তারা ওভারস্পিডে চালাতে চায়। এরপর দুর্ঘটনা ঘটায়। কিন্তু মেয়েদের মাথা ঠাণ্ডা থাকে। তারা ভালো গাড়ি চালাতে পারবে।’

সেতুমন্ত্রী চলতি সপ্তাহে রাজধানী ঢাকার ভেতরে ১০টি মহিলা বাস উদ্বোধন করেছেন। একজন নারী এ বাসগুলোর উদ্যোক্তা। আর বাসের হেলপারও নারী- বিষয়টি ইতিবাচক হিসেবে উল্লেখ করেন কাদের।

র‌্যাংগস গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সোহানা রউফ চৌধুরী দোলনচাঁপা নামে ১০টি মহিলা বাস নামিয়েছেন। মিরপুর থেকে মতিঝিল রুটে এ বাসগুলো চলবে। আরও ৫০টি বাস নামাবেন সোহানা চৌধুরী।

মন্ত্রী এ বিষয়টি উল্লেখ করে বলেন, ‘এই প্রথম কোনো বেসরকারি উদ্যেক্তা বাস খাতে নামলো। সোহানা একজন নারী। আর সে স্বপ্ন দেখেছে। আমি সেই স্বপ্নে সহযোগিতা করেছি। খুব দ্রুত স্বপ্নের বাস্তবায়ন হয়েছে।’

এ প্রসঙ্গে কাদের আরও বলেন, বিআরটিসিতে মহিলা বাস আগে ছিলো ১৭টি এখন আরও ৪টি চলবে। এ নিয়ে ঢাকায় সরকারি মহিলা বাসের সংখ্যা হবে ২১টি। বিআরটিসি চেয়ারম্যানকে এসব বাসে মহিলা চালক ও হেলপার নিয়োগের পরামর্শ দেন সড়কমন্ত্রী। আর সরকারি বেসরকারি মিলিয়ে ঢাকায় এখন মহিলা বাসে সংখ্যা হবে ২১টি।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) সবশেষ হিসাব অনুযায়ী, ২০১৮ সালের মার্চ পর্যন্ত দেশে ১৭ লাখ লাইসেন্সধারী চালকের মধ্যে নারীর সংখ্যা ছিল ২৪ হাজার ২২৫ জন। তাদের মধ্যে অপেশাদার লাইসেন্স রয়েছে ২৩ হাজার ৫২২ জন নারীর। আর পেশাদার নারী চালক হিসেবে লাইসেন্স নিয়েছেন মাত্র ৭০৩ জন।

পেশাদার চালকের লাইসেন্সধারী নারীদের মধ্যে ভারী গাড়ি চালনার অনুমতি রয়েছে ১৪ জনের। আর ১৮ জন মাঝারি মানের গাড়ি, ৬১৩ জন হালকা গাড়ি এবং ৫৮ জন দুই চাকার বাহন চালানোর লাইসেন্স নিয়েছেন।

বাংলাদেশে সরকারি দপ্তরগুলোর মধ্যে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ গতবছর ১০ জন নারী চালক নিয়োগ দেয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here