মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের মধ্যে আসন্ন বৈঠকের দিকে অসীম আগ্রহ নিয়ে তাকিয়ে আছে বিশ্ববাসী। চরম বৈরী ভাবাপন্ন দুই দেশের দুই রাষ্ট্রপ্রধানের মধ্যে এই বৈঠকে কী আরোচনা হয় সেটাই সবার আগ্রহের কারণ। ঐতিহাসিক সম্মেলনের সব ব্যস্ত কর্মযজ্ঞ পরিচালিত হবে সিঙ্গাপুরের তিনটি হোটেলে।

১২ জুনের ওই সম্মেলনের আগে মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে সিঙ্গাপুরের সেন্তোসা দ্বীপের বিলাসবহুল ক্যাপেল্লা হোটেলে এ দুই প্রেসিডেন্ট মিলিত হবেন বলে নিশ্চিত করা হয়েছে।

সম্প্রতি সিঙ্গাপুর সরকার অবকাশযাপন দ্বীপ হিসেবে পরিচিত সেন্তোসাকে দ্বীপকে ‘স্পেশাল ইভেন্ট এরিয়া’ হিসেবে ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

এদিকে, সিঙ্গাপুরে পৌঁছানোর পর অর্কার্ড রোডের শাংগ্রি-লা হোটেলে ট্রাম্প এবং সেন্ট রেজিস হোটেলে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন অবস্থান করতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জানা গেছে, অর্কার্ড রোডের পাশে ১৫ একর জায়গা ঘিরে অবস্থিত বিলাবহুল এই হোটেল। রাষ্ট্রের প্রধান ও বিশিষ্ট অতিথিদের জন্য ২৬টি স্যুটস-সহ হোটেলটিতে রয়েছে ৭৪৭টি কক্ষ। আগামী ১০ থেকে ১৪ জুন পর্যন্ত হোটেল এলাকাকে স্পেশাল ইভেন্ট এরিয়া হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে সিঙ্গাপুর সরকার।

হোটেলটির প্রেসিডেন্ট স্যুটে; যা ভ্যালি উইং শাংগ্রি-লা স্যুট নামে পরিচত ট্রাম্প তার সিঙ্গাপুর সফরের সময় অবস্থান করতে পারেন বলে বিশেষজ্ঞরা ধারণা করেছেন। হোটেলটিতে গোপন প্রবেশদ্বার ও বহির্গমনের ব্যবস্থা রয়েছে।

সাবেক দুই মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও জর্জ এইচ ডব্লিউ বুশ সিঙ্গাপুরে সফরে গিয়ে এই হোটেলটিতে অবস্থান করেছিলেন। সিঙ্গাপুরের প্রধান শপিং বেল্ট থেকে দূরে আবাসিক এলাকায় অবস্থিত এই হোটেল। অতিথিদের গোপনীয়তার নিশ্চয়তা রয়েছে সেখানে।

বিলাশবহুল ডাইনিং রুম

এছাড়া শাংগ্রি-লা হোটেলের পাশাপাশি দ্য সেন্ট রেজিসকেও স্পেশাল ইভেন্ট এরিয়া হিসেবে ঘোষণা করেছে সিঙ্গাপুর। শাংগ্রি-লা হোটেল থেকে মাত্র ৯ মিনিটের হাঁটা পথ দূরত্বে অবস্থিত বিলাসবহুল দ্য সেন্ট রেজিস হোটেলে কিম অবস্থান করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট মা ইং-জিওর সঙ্গে ২০১৫ সালে শি জিনপিংয়ের ঐতিহাসিক বৈঠকের সময় এই হোটেলে অবস্থান করে চীনা প্রতিনিধি দল।

তবে অর্কার্ড রোড বেল্ট থেকে একটু দূরের ট্যাঙ্গলিন রোডে অবস্থিত এই হোটেলের গোপনীয়তা শাংগ্রি-লা হোটেলের মতো কড়াকড়ি নয়। হোটেলটি ২০ তলায় বিলাসবহুল প্রেসিডেন্ট স্যুটসহ প্রায় ২৯৯টি কক্ষ রয়েছে। স্যুটের প্রত্যেক কক্ষে রয়েছে স্বর্ণখচিত রেখা।

এদিকে সেন্তোসা দ্বীপের বিলাসবহুল এই হোটেলকে ঐতিহাসিক ট্রাম্প-কিমের বৈঠকের স্থান হিসেবে স্থানীয় সময় আগামী মঙ্গলবার সকালের দিকে ঘোষণা দিয়েছেন হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি সারাহ স্যান্ডার্স।

আগামী ১০ থেকে ১৪ জনু পর্যন্ত এই পুরোদ্বীপের পাশাপাশি দক্ষিণ-পশ্চিমের সমুদ্র সৈকতকে স্পেশাল ইভেন্ট এরিয়া হিসেবে ঘোষণা দিয়ে সরকারি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সিঙ্গাপুর সরকার।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here