মধ্যপ্রাচ্য যুদ্ধের সময় ১৯৬৭ সালে পূর্ব জেরুজালেম দখলে নেয় ইসরায়েল। তবে তাদের এই দখলদারিত্ব আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পায়নি। গত বছরের ৬ ডিসেম্বর পবিত্র এ নগরীকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে ঘোষণা দিয়ে সেখানে মার্কিন দূতাবাস সরিয়ে নেওয়ার অঙ্গীকার করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ ঘোষণার পর ফিলিস্তিনসহ বিশ্বের অনেক মুসলিম দেশে ব্যাপক প্রতিবাদ শুরু হয়।

এবার একসঙ্গে প্রায় তিন লাখ ফিলিস্তিনি নামাজ আদায় করলেন পবিত্র নগরী জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদে। রমজানের শেষ শুক্রবার জুমার নামাজ আদায় করেন এই বিপুল সংখ্যক মানুষ। জর্ডান পরিচালিত ইসলামী ওয়াকফ মসজিদটি পরিচালনার দায়িত্বে থাকা এক কর্মকর্তা বলেন, শুক্রবার নামাজে প্রায় তিন লাখ লোক উপস্থিত ছিলেন।

অধিকৃত পশ্চিম তীরের জেরুজালেমে ৪০ বছরের কম বয়সী ফিলিস্তিনিদের প্রবেশে বাধা দিচ্ছে ইসরায়েল। এমনকি অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকা থেকে কোনো ফিলিস্তিনিকে শুক্রবারের নামাজে অংশ নিতে দেওয়া হয়নি। পুরো জেরুজালেমে ইসরায়েলি নিরাপত্তাবাহিনী মোতায়েন করা হয়। শুক্রবারের নামাজ আদায়কে কেন্দ্র করে ওল্ড সিটিতে নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করে ইসরায়েল।

খ্রিস্টান, ইহুদি ও মুসলিম এই তিন ধর্মের অনুসারীদের কাছে পবিত্র স্থান হিসেবে পরিচিত জেরুজালেম। ইসলামের তৃতীয় পবিত্র স্থাপনাও জেরুজালেমে। গত কয়েকদশক ধরে ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাতের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে পবিত্র এই নগরী।

চলতি বছরের ১৪ মে জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে গাজায় নিহত হয়েছিল অর্ধশতাধিক। এ ছাড়া আহত হয়েছিলেন দেড়হাজারের বেশি মানুষ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here