আর মাত্র একদিনের অপেক্ষা। এরপরই রাশিয়ায় শুরু হয়ে যাবে বিশ্বকাপ ফুটবলের মহাযজ্ঞ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কী কী থাকছে, যা দেখতে মুখিয়ে আছে কোটি কোটি দর্শক।

এজন্য প্রস্তুত রাশিয়ার লুঝনিকি স্টেডিয়াম। এখানেই হবে বিশ্বকাপের জাকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। শেষ সময়ের প্রস্তুতি সেড়ে নিয়েছে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পারফর্মাররা। ফুটবলের বৈশ্বিক আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের কেন্দ্রস্থল ৮০ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতার লুঝনিকি স্টেডিয়াম উৎসবের বাদ্য-বাজনায় কেঁপে উঠবে বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায়।

রাশিয়া-সৌদি আরবের মধ্যকার ‘গ্রেটেস্ট ফুটবল শো অন আর্থ’-র উদ্বোধনী ম্যাচের প্রায় দুই ঘণ্টা আগে। রাশিয়ান ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির প্রতিটি ক্ষেত্র ফুটিয়ে তুলবেন প্রায় ৫০০ ড্যান্সার, জিমন্যাস্ট ও ট্রাম্পোলিনিস্ট পারফর্মাররা।

গান নির্ভর আধা ঘণ্টার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান রাঙিয়ে দিবেন ‘অ্যাঞ্জেলস’ গানের জন্য জনপ্রিয় গায়ক রবি উইলিয়ামস। রুশদের খোঁচা মেরে গাওয়া ব্রিটিশ এ পপ তারকার ‘পার্টি লাইক এ রাশিয়ান’ গানটি অবশ্য দু বছর আগে বিতর্কের জন্ম দিয়েছিল রাশিয়ায়।

ফিফার জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মঞ্চে আর্বিভূত হবেন ‘দ্য ফেনোমেনন’ খ্যাত ব্রাজিলিয়ান ফুটবল কিংবদন্তী রোনালদো। ১৯৯৪ ও ২০০২ বিশ্বকাপ জয়ী রোনালদোর ভূমিকা কী হবে তা নিয়ে বিস্তারিত কিছু অবশ্য জানাননি অনুষ্ঠানের ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর রুশ প্রোডিউসার ফেলিক্স মিখাইলোভ। তবে তিন বারের বিশ্বকাপ জয়ী কিংবদন্তী পেলের উপস্থিতি নিয়ে দেখা দিয়েছে ধোঁয়াশা।

ফুটবলের বিশ্বমঞ্চে টুর্নামেন্টের অফিসিয়্যাল গান ‘লাইভ ইট আপ’ দিয়ে ফুটবল অনুরাগীদের মাতিয়ে দিতে ত্রয়ী পারফর্মার উইল স্মিথ, নিকি জ্যাম ও এরা ইসত্রেফি মঞ্চে থাকবেন কী না তা এখনো নিশ্চিত নয়। লুঝনিকি স্টেডিয়ামের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আগে বুধবার কনসার্ট হবে মস্কোর বিখ্যাত রেড স্কোয়ারে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here