রাশিয়া বিশ্বকাপে এই প্রথমবারের মতো দেখা যাবে ফিফার তালিকাভুক্ত সবচেয়ে সুন্দরী নারী রেফারি ফার্নান্দা কলম্বো ইউলিয়ানাকে। ফলে ফুটবল বিশ্বকাপের ৮৮ বছরের ইতিহাসে ব্রাজিলের নাগরিক এই নারী নতুন রেকর্ড স্থাপন করতে যাচ্ছেন।

২০১৭ সালে অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপে প্রথমবারের মত সুইজারল্যান্ডের নারী এসথার স্টাউব্লি রেফারির দায়িত্ব পালন করেছেন। তবে সর্বোচ্চ পর্যায়ের বিশ্বকাপে রেফারির দায়িত্ব পালন করা প্রথম নারী হতে যাচ্ছেন ২৫ বছর বয়সী ইউলিয়ানাই।

ফিফা ইউলিয়ানাকে বলছে বিউটি উইথ ব্রেইনস’ বা ‘বুদ্ধিমতী সুন্দরী’। ব্রাজিলের ইউনিভার্সিটি অব সান্তা কাতারিনায় শারীরিক শিক্ষায় স্নাতক করা ইউলিয়ানা মাঠের বাইরে মডেলিংও করেন। এছাড়া লাইন্সম্যান হিসেবে দীর্ঘদিন ব্রাজিলের প্রথম বিভাগের ফুটবলে দায়িত্ব পালন করেছেন।

ইউলিয়ানা জানান, রেফারি হিসেবে এতদূর পথ আসাটা সহজ ছিল না, ‘এখানে আসাটা খুবই কঠিন ছিল। আমি সবসময়ই ফুটবল ভালোবেসেছি। শারীরিক শিক্ষার কোর্স করার সময় খুব একটা ভাল খেলতাম না। তাই আমাকে যখন রেফারিংয়ের কোর্সের কথা বলা হল, খুব খুশি হয়েছিলাম।’

ক্যারিয়ার জুড়েই এমন লিঙ্গ বৈষম্যমূলক ও যৌন সংবেদনশীল মন্তব্যের শিকার হয়েছেন ইউলিয়ানা। তবে নিজের কঠোর পরিশ্রম দিয়ে ঠিকই সবাইকে বাধ্য করেন তার প্রশংসা করতে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here