বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্ন নিয়ে রাশিয়া সফরে গিয়েছিলেন নিকোলা কালিনিচ। কিন্তু কপাল মন্দ ক্রোয়েশিয়ান এই স্ট্রাইকারের। বিশ্বকাপ মিশন শেষ না করেই দেশে ফিরে যেতে হলো তাকে। কালিনিনগ্রাদে ‘ডি’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় ছিনিয়ে নেয় ক্রোয়েশিয়া।

ম্যাচের শেষ দিকে বদলি হিসেবে কালিনিচকে মাঠে নামাতে চেয়েছিলেন কোচ জ্লাতকো দালিচ। এ নিয়ে টানা চার আন্তর্জাতিক ম্যাচে শুরুর একাদশে থাকতে পারেননি ওই খেলোয়াড়। তাই রাগ করে বদলি হিসেবে নামতে অপরাগতা প্রকাশ করেন। পরে উপয়ান্তুর না দেখে উইঙ্গার মার্কো জাচাকে কোচ মাঠে নামান ফরওয়ার্ড মারিও মানজুকিচের স্থলে।

কালিচ অবশ্য সরাসরি না বলেননি। পিঠের চোটের অজুহাত দেখিয়েছিলেন। কোচ ব্যাপারটা বুঝতে পেরে তাকে সোজা দেশে পাঠিয়ে দেন। এনিয়ে কোচ দালিচ বলেন, ‘কোনো ইনজুরি ছাড়াই আমরা ম্যাচ শেষ করেছি। তবে একটা সমস্যা হয়েছে।’

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ম্যাচকে সামনে রেখে সেন্ট পিটার্সবুর্গে ক্রোয়েশিয়ার অনুশীলনে এ ঘটনার কোনো প্রভাব অবশ্য চোখে পড়েনি। তবে কালিনিচ বাদ পড়ায় ক্রোয়েশিয়ার আক্রমণভাগের শক্তি কমে গেল। দলের মূল স্ট্রাইকার হিসেবে রয়ে গেলেন কেবল মানজুকিচ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here