মিশরকে ৩-১ গোলে হারিয়ে সবার আগে বিশ্বকাপের নকআউট পর্বের খেলা নিশ্চিত করেছে স্বাগতিক রাশিয়া। অন্যদিকে ১৯৯০ সালের পর প্রথম বিশ্বকাপে খেলতে আসা মোহাম্মদ সালাহর মিশরের বিদায় ঘণ্টা বাজল এক ম্যাচ হাতে রেখেই।

সৌদির বিরুদ্ধে সাবলিল জয় পেলেও মিশরের বিরুদ্ধে রাশিয়ার লড়াইটা হবে জম্পেশ, এমন ধারণা ছিল সবার। কারণ ইনজুরি কাটিয়ে মিশরের একাদশে ফিরেছিলেন মোহাম্মদ সালাহ। মিশরও ছিল উজ্জীবিত। অভিষেক বিশ্বকাপে সালাহ পেয়েছেন প্রথম গোল, পেনাল্টি থেকে। কিন্তু দলের হারে সব যেন ম্লান।

সেইন্ট পিটার্সবার্গে অনুষ্ঠিত ম্যাচের প্রথমার্ধ গোলশূন্য। তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই আত্মঘাতি গোল মিশরের। গোলোভিনের ক্রস বিপদমুক্ত করতে গিয়ে নিজেদের জালেই বল জড়িয়ে দেন মিশরের অধিনায়ক আহমেদ ফাতহি। ১-০ তে লিড নেয় রাশিয়া।

৫৯ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে স্বাগতিকরা। বাই লাইন থেকে মারিও ফার্নান্দেজের ক্রসে গোলটি করেন দেনিজ চেরিশভ। চলতি টুর্নামেন্টে এটি তার তৃতীয় গোল। ৩ মিনিট পর রাশিয়ার হয়ে তৃতীয় গোলটি করেন আর্তেম জুবা (৩-০)। গোলরক্ষকের দুই পায়ের মাঝ দিয়ে বল পাঠিয়ে দেন মিশরের জালে।

৭৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে ব্যবধান কমান মিশরের তারকা স্ট্রাইকার মোহাম্মদ সালাহ (৩-১)। তাকেই ডি-বক্সে ফাউল করায় ভিএআর প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে স্পট কিকের সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন রেফারি। ঠাণ্ডা মাথায় গোল করেন সালাহ। তবে বাকি সময়ে আর কোন গোলের দেখা পায়নি মিশর।

দাপুটে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিক রাশিয়া। টানা দুই জয়ে ছয় পয়েন্ট নিয়ে এ গ্রুপে শীর্ষে রাশিয়া। ৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উরুগুয়ে। সৌদি ও মিশর এখনো পয়েন্ট অর্জন করতে পারেনি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here