গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে দারুণ এক অবস্থানে ছিল ইরান। মরক্কোর বিরুদ্ধে শেষ মুহুর্তে গোলের দেখা পেয়েছিল তারা। বুধবার রাতে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে শক্তিশালী স্পেনের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছিল ইরানিরা। ম্যাচটি ছিল দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠার ম্যাচ। এমন ম্যাচে প্রথমার্ধটা ধরেই খেলেছিল ইরান। গোলশুন্য ড্র ছিল।

দ্বিতীয়ার্ধে গোল হজম করে ফেলে তারা। সেই গোলটি দ্রুতই শোধও করেছিল ইরান। কিন্তু ভিডিও রেফারেলে গোল বাতিল করায় সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেননি ইরানের এক কোচিং স্টাফ। ফলে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি এবং হাসপাতালে ভর্তি করাতে হয়।

বুধবার স্পেনের বিপক্ষে ম্যাচে শক্ত ডিফেন্স গড়েছিল ইরান। জমাট রক্ষনের দেয়াল টপকাতে পারছিলেন না ইনিয়েস্তা-বুসকেটসরা। তবে ভাগ্যের সহায়তায় স্পেন ইরানের জালে বল পাঠিয়ে দিয়েছিল। গোল হজমের অল্প কিছুক্ষনের মধ্যে সেই গোল পরিশোধও করে ফেলেছিল ইরানিরা। উল্লাসে মেতে উঠা ইরানিদের সেই হাসি অল্প কিছু সময়ের মধ্যেই মিলিয়ে যায়।

ভিএআরের মাধ্যমে জানা যায়, গোলটি ছিল অফসাইড। ফলে বাতিল হয়ে যায় এই গোল। রেফারির এমন সিদ্ধান্তে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে ইরানের কোচিং ম্যানেজম্যান্টের এক সদস্যকে। ম্যাচ শেষে এই তথ্য জানিয়েছেন খোদ ইরানের কোচ। তবে সেই সদস্যের নাম বা পদবি কিছুই উল্লেখ করেননি কার্লোস কুইরোজ। বলেন, ‘ম্যাচ হারার চেয়েও আমাদের চিন্তার বড় কারণ হচ্ছে আমাদের দলের এক সদস্য ভিএআর সিদ্ধান্তের পর স্বাস্থ্যগত ঝুঁকিতে পড়ে গিয়েছে। সে এখন হাসপাতালে। আমরা আশা করছি সব ঠিক হয়ে যাবে। আমাদের সকলের দোয়া তার সাথে রয়েছে।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here