শুরুটা বাজে। মেক্সিকোর সঙ্গে হার। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে জার্মানির এমন হার ৩৬ বছরের মধ্যে প্রথম। গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে জার্মানির প্রতিপক্ষ সুইডেন। যে ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ানোর বিকল্প নাই বর্তমান চ্যাম্পিয়নরে। বারুদে উত্তাপ ছড়ানো ম্যাচটি সোচিতে শুরু হবে বাংলাদেশ সময় শনিবার রাত ১২টায়।

কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে এ ম্যাচে ঘুরে দাঁড়াতে পারবে তো জার্মানি? প্রথম ম্যাচের বাজে পারফরম্যান্স কারণে এই প্রশ্ন জ্বলজ্বল করছে জার্মান সমর্থকরে মনে। কারণ হারার চেয়ে হারার ধরন নিয়ে বেশি চিন্তিত দলটির ভক্তরা। একে তো বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ। যেখানে ভালো শুরু গুরুত্ব অনেক। কিন্তু সেটি যেন ভুলে গিয়েছিলো জার্মান ফুটবলাররা। খেলায় ছিল না কোন পরিকল্পনার ছাপা। মিডফিল্ডে নিজেরে ছায়া হয়ে ছিলেন টমাস মুলার, মেসুত ওজিল এবং টনি ক্রস। পুরোপুরি ফিট ছিলেন না দলের অধিনায়ক ম্যানুয়েল নয়ার। রক্ষণের অবস্থা ছিলো আরো খারাপ। বারবার কাউন্টার অ্যাটাকে বেয়াটংরে পরীক্ষা নিয়েছে মেক্সিকানরা।

কিন্তু অতীত নিয়ে ভাবতে চান না, জার্মানির কোচ জোয়াকিম লো। তার মূল চিন্তা ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের ২৪ নম্বর স্থানে থাকা সুইডেনকে নিয়ে। এফ গ্রুপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে পুরনো সুইডিশদের পাচ্ছে জামার্নরা। এ ম্যাচকে ঘিরে নতুন করে ছক কষছেন জার্মান কোচ। দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ার এ ম্যাচ জিততে হবে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। আর হার কিংবা ড্রতে শঙ্কায় পড়ে যাবে শিরোপা ধরে রাখার মিশন।

মুল স্ট্রাইকারের জায়গাও পরিবর্তন আনতে পারেন জোয়াকিম লো। বাছাই পর্বে ঝলক দেখানো টিমো ওয়ানারের বদলে মারিও গোমেজকে এগিয়ে রাখছেন জার্মান কোচ। কারণ যে কোন উপায়ে জয় চাইছেন তিনি, ‘প্রথম ম্যাচ কি হয়েছে তা আমরা ভুলে গেছি। পরের দুই ম্যাচ আমারে জন্য ফাইনালের সমান। যে কোন উপায় আমরা এই ম্যাচ দুটি জিততে চাই। আর প্রথমে সুইডেনকে হারিয়ে নতুন ভাবে রাশিয়ার মিশন শুরু করার লক্ষ্য আমাদের।’

এদিকে নিজেদের প্রথম এশিয়ার ল দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে ১-০ গোলের জয় পেয়েছিলো সুইডিশরা। সুতরাং এ ম্যাচে জিততে বিশ্বকাপের নক আউট রাউন্ড নিশ্চিত হবে তারে। এই সুযোগ হাত ছাড়া করতে চান না সুইডিশ কোচ এন্ডারসন। ফুটবলারদের ফিটনেস ও ইনজুরির কোন সমস্যা নাই। তাই দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষের একাশ নিয়েই মাঠে নামবে সুইডেন।

দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে জার্মানি। এ পর্যন্ত ৩৭ বার মুখোমুখি হয়েছে ইউরোপের দুই দেশ। এতে জার্মানদের ১৫ জয়ের বিপরীতে, সুইডেন জিতেছে ১২টি। ৯টি ড্র। বিশ্বকাপের মঞ্চে চারবার করে মুখোমুখি হয়েছে জার্মানি ও সুইডেন। এখানেও এগিয়ে জার্মানরা। চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে সুইডেন একবার জিতলেও হেরেছ বাকি তিনটি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here