সন্তানদের ঠিক মতো খেতে দিতে পারতেন না দরিদ্র অটোরিকশা চালক কাজল মোল্লা। তাই ছোট্ট দুই ছেলে-মেয়েকে গলাটিপে খুন করে নিজে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। আজ ভোরে নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলা পৌর এলাকার তুলাতলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

কাজল মোল্লার মেয়ের নাম কাকলী আক্তার (৮) ও ছেলে সোয়ান মোল্লা (৫)। পুলিশ তাদেরও লাশ উদ্ধার করেছে।

কাজল মোল্লার বড় ভাই সামসু মোল্লা বলেন, কাজল মোল্লা প্রায় তিন বছর ধরে তাদের বাড়িতে থাকে না। সে উপজেলার নয়াচর গ্রামের শ্বশুর বাড়িতে থেকে নরসিংদী শহরে অটোরিকশা চালাত। মাঝেমধ্যে বাড়িতে আসত খোঁজখবর নিতে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার আগে দুই সন্তানকে নিয়ে বাড়িতে আসে এবং দেখা কেরে সন্ধ্যার পর চলেও যায়।

‘আজ সকালে খবর পাই আমাদের বাড়ির খানিকটা দূরে তার দুই সন্তানকে হত্যা করে সে আহত্মহত্যা করেছে। গিয়ে দেখি বর্ষার পানি জমে থাকা একটি গর্তের পাশে সন্তান দুটির মরদেহ পড়ে আছে এবং একটি গাছে তার মরদেহ ঝুলছে।’

রায়পুরা থানার ওসি দেলোয়ারর হোসেন বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে সন্তানদের নিয়ে সে আত্মহত্যা করেছে। তদন্তের আগে এর বেশি কিছু বলা সম্ভব নয়। পুলিশ মরদেহ ময়নাতদন্তেন জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here