তৃষ্ণার্তকে পানি দিতে চেয়েছিল মেয়েটি। অথচ তার পরিণাম হিসেবে ধর্ষিত হতে হয়েছে তাকে। পশ্চিমবঙ্গের কলকাতার রিজেন্ট পার্ক থানা এলাকায় সম্প্রতি এই ঘটনা ঘটে।

সেখানকার গণমাধ্যম জানায়, নির্যাতিতা দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী৷ তার মা সকালবেলায় কাজের জন্য বাইরে চলে যান৷ বাড়িতে একাই ছিল মেয়েটি। বাংলাদেশ থেকে সম্প্রতি আসা তাদেরই এক দূর সম্পর্কের আত্মীয় এসেছিল ফোনের সিম নেওয়ার জন্য। ব্যক্তির নাম অভিনাথ মিস্ত্রি। সিমটি নিয়ে সে চলেও যায়৷

কিন্তু পরে আবার ফিরে এসে পানি খেতে চায় এবং দরজা খুলতে বলে। মেয়েটি তখনও বুঝতে পারেনি ওই ব্যক্তির মতলব। দরজা খোলার পর মেয়েটিকে সে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ।

বাইরে হোস্টেলে থেকে পড়াশুনা করে মেয়েটি৷ শরীর খারাপ থাকায় বাড়িতে মায়ের কাছে এসে ছিল সে৷ গত কদিন ধরেই ওই ব্যক্তি তাকে নানা রকম কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল বলে জানিয়েছে মেয়েটিকে। এমনকি, তাকে প্রাণে মারার হুমকিও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ৷

অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে রিজেন্ট পার্ক থানার পুলিশ৷ তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে৷

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here