পরকীয়ার জেরে নওগাঁর বদলগাছীতে স্বামীর লিঙ্গ কেটে দিয়েছে স্ত্রী। এ ঘটনায় গুরুতর আহত স্বামীকে হাসপাতলে ভর্তি করেছেন স্বজনরা। এদিকে ঘটনার পর ওই গৃহবধূকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৩ জুন) ভোরে উপজেলার বিলাশবাড়ি ইউনিয়নের চকনরশিং গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, দুই সন্তানের জনক উপেন চন্দ্র দীর্ঘদিন ধরে পত্নীতলা উপজেলার নজিপুরের পূর্ণিমা রানী নামে এক বিধবা নারীর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। স্ত্রী রিতা রানী অনেক নিষেধ করার পরও স্বামী তা অব্যাহত রাখে। গত কয়েকদিন পূর্বে গ্রামে প্রতিবেশীর এক বিয়ের অনুষ্ঠানে এসে পূর্ণিমা রানীর সঙ্গে উপেন চন্দ্র অনৈতিক কার্যকলাপে লিপ্ত হলে স্ত্রী রিতা রানী তা দেখে ফেলেন।

এ নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ চলছিল। শনিবার উপেন চন্দ্র ঘুমিয়ে ছিলেন। এ সময় স্ত্রী রিতা রানী ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্বামীর লিঙ্গ কেটে (শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন) ফেলেন। এরপর উপেন চন্দ্রের চিৎকারে বাড়ির লোকজন ছুটে আসলে বিষয়টি বুঝতে পারে। তাৎক্ষণিক তাকে উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

বদলগাছী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহিনুর ইসলাম বলেন, গৃহবধূ রিতা রানীকে আটক করা হয়েছে। আহতের মামা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here