গায়ের রং কালো বলে নিয়মিত গঞ্জনার প্রতিশোধ হিসেবে খাবারের ডালে বিষ মিশিয়ে শ্বশুরবাড়ির পাঁচ আত্মীয়কে খুন করলেন এক গৃহবধূ।

ভয়াবহ এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের মহারাষ্ট্রের খালাপুর গ্রামে। এই ঘটনায় গ্রামটিতে এখন শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

পুশি ওই গৃহবধূকে ইতোমধ্যে গ্রেফতার করেছে। পুলিশের দাবি, গ্রেফতারের পর প্রদন্যা সারভাসে নামে ওই গৃহবধূ খাবারে বিষ মেশানোর কথা স্বীকারও করেছেন।

প্রদন্যা পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছেন, দু’বছর আগে সুরেশ গোবিন্দ সারভাসের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। কিন্তু তার পর থেকেই তাকে কালো বলে নানা রকম কথা শোনাতেন স্বামী-সহ শাশুড়ি সিন্ধু সারভাসে, বিবাহিত দুই ননদ এবং অন্য প্রায় সব আত্মীয়রাই।

পাশাপাশি তার রান্না নিয়েও নানা রকম কটূ কথা শোনাত তারা। সেই রাগ ও অভিমানেই শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে খুনের চেষ্টা করেন বলে পুলিশকে জানিয়েছেন প্রদন্যা।

পুলিশ সূত্রে খবর, সুভাষ মানে নামে প্রদন্যাদের পরিবারের এক আত্মীয় সোমবার একটি গৃহপ্রবেশের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। তাতে শতাধিক আত্মীয়-পরিজনের সঙ্গে প্রদন্যার পরিবারের লোকজনকেও নিমন্ত্রণ করেন। অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে প্রদন্যা গোপনে সাপ মারার বিষ ডালের মধ্যে মিশিয়ে দেন। পুলিশি জেরায় তিনি এ-ও জানিয়েছেন, লুকিয়ে বাড়ি থেকে ওই বিষ-পাউডার নিয়ে গিয়েছিলেন।

কিন্তু খাওয়া-দাওয়া শেষ হওয়ার পরই শ্বাসকষ্ট, বমি ও পেটে ব্যথার মতো উপসর্গ শুরু হয় অনেকের। একে একে অসুস্থ হয়ে পড়েন ৮৮ জন। তাদের স্থানীয় দু’-তিনটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। গত কয়েক দিনে তাদের মধ্যে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়। মৃতদের মধ্যে তিনটি শিশুও রয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here