প্রথম ম্যাচে আইসল্যান্ডের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র। বাঁচা-মরার দ্বিতীয় ম্যাচে যেখানে আর্জেন্টিনাকে জ্বলে উঠতে হতো দ্বিগুণ শক্তিতে, সেখানে ক্রোয়েশিয়ার সঙ্গে ৩-০ গোলের ন্যাক্কারজনক হার। যে হারে চিকন সুতোর উপর ঝুলছে আর্জেন্টিনার ভাগ্য। এই ম্যাচের পরই জোর আলোচনায় মেসিরা।

দলের মধ্যে নাকি চলছে ভয়ানক কোন্দল। আর তা কোচ সাম্পাওলিকে ঘিরেই। ম্যাচের দিনই সার্জিও অ্যাগুয়েরো নিজের ক্ষোভ ঝেড়ে বলেছিলেন, ‘তাকেই (সাম্পাওলি) সব বলতে দিন, যা বলতে চান তিনি।’

সিনিয়র ফুটবলারদের সঙ্গে সাম্পাওলির দ্বন্দ্ব এখন সবার সামনে চলে এসেছে। আর্জেন্টিনার ১৯৮৬ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য বুরুচাগা কোচ হচ্ছেন মেসিদের, ক্রোয়েশিয়ার সঙ্গে হারের পর এমন খবর ছিল তুঙ্গে। তবে তা আর হচ্ছে না। সাম্পাওলিকেই বহাল রাখছে আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এএফএ)।

তবে নাইজেরিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে একাদশ সাজানোর ক্ষমতা থাকছে না সাম্পাওলির। দল সাজাবেন সিনিয়র ফুটবলাররা।

আর্জেন্টিনার সংবাদ মাধ্যম টিওয়াইসি স্পোর্টস জানিয়েছে, ‘ক্রোয়েশিয়ার কাছে হারের পর থেকেই খেলোয়াড়েরা সাম্পাওলির কোনো নির্দেশের তোয়াক্কা করছেন না! অর্থাৎ সাম্পাওলির এখন শুধুই ‘কাগুজে’ কোচ। সিদ্ধান্ত যা নেয়ার খেলোয়াড়েরাই নিচ্ছেন।

আর্জেন্টিনার সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে হারের পর গভীর রাতে খেলোয়াড়েরা তাদের বেইসক্যাম্পে বৈঠকে বসেন। সেখানে সাম্পাওলিকে তারা বলেন, নাইজেরিয়ার বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে তিনি যেন কোচিং না করেন।

আর্জেন্টিনার গণমাধ্যমের খবর, সাম্পাওলিকে না মানার এই বিদ্রোহে খেলোয়াড়দের সমর্থন দিচ্ছেন স্বয়ং এএফএ সভাপতি ক্লদিও তাপিয়া। অন্যান্য সংবাদমাধ্যমে অবশ্য দাবি করেছে, খেলোয়াড়, কোচিং স্টাফ ও তাপিয়া মিলে বৈঠক শেষে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের পরিস্থিতি মোকাবিলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এমন হট্টগোলের সময় কথা বলেছেন ১৯৮৬ বিশ্বকাপ জয়ী আর্জেন্টিনার সাবেক ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার রিকার্ডো গিউস্তি। দলের এমন বাজে অবস্থা নিয়ে নাকি তার সঙ্গে কথা হয়েছে বুরুচাগার।

যেখানে বুরুচাগা নাকি তাঁকে বলেছেন, নাইজেরিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে খেলোয়াড়েরা তার সঙ্গে কথা বলেছেন।

গিউস্তির ভাষ্য, ‘খেলোয়াড়েরাই একাশ ঠিক করবেন। এটাই বাস্তবতা। সাম্পাওলি চাইলে বেঞ্চে বসে থাকতে পারেন। তা না চাইলেও সমস্যা নেই।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here