রোববার ছিল এই সময়ের শ্রেষ্ঠ ফুটবলার ও আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসির ৩১তম জন্মদিন। স্ত্রী আন্তোনেল্লা এখন আর্জেন্টিনার রোসারিওতে। সেই নিয়েও আর্জেন্টিনীয় সংবাদমাধ্যম রহস্য খুঁজছিল! বিশ্বকাপের বাজে পারফরমেন্স কি দু’জনের সম্পর্কে ভাঙন ধরল?

সাংবাদিকদের হতাশ করে আন্তোনেল্লা রোকুজ্জো রোববার সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইটে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন স্বামী মেসি’কে। লিখেছেন, ‘আমাকে পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী স্ত্রী রাখার জন্য ধন্যবাদ। জন্মদিনের অসংখ্য শুভেচ্ছা’। স্ত্রী এখন রাশিয়ায় না থাকলেও মঙ্গলবার ছেলেদের নিয়ে যাচ্ছেন রাশিয়ায়। নাইজিরিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে দেখার জন্য। জন্মদিনে অধিনায়ক আরও শুভেচ্ছা পেয়েছেন ব্রাজিলের নেইমার দ্য স্যান্টোস সিলভা জুনিয়র, কার্লেস পুয়োল, লুইস সুয়ারেসের কাছ থেকে।

আরও তাৎপর্যপূর্ণ রোববার প্র্যাক্টিসে নামার পর মেসিকে জড়িয়ে ধরেন কোচ হোর্হে সাম্পাওলির! কোচকে নিয়েই তো এখন যত কাণ্ড ব্রনিতসি’তে! আর্জেন্টিনা শিবিরে কোচের বিরুদ্ধেই যাবতীয় ক্ষোভ ফুটবলারদের।

কিন্তু সেই বিতর্ক রোববার সাংবাদিকদের সামনে সযত্নে এড়িয়ে গেলেন অধিনায়ক। বরং তার মুখে শোনা গিয়েছে অন্য এক শপথের কথা! মেসি বলেছেন, ‘বিশ্বকাপ না জেতা পর্যন্ত অবসর নেব না! বরাবরই একটা ছবি দেখেছি যে, বিশ্বকাপের ট্রফিটা হাতে নিয়ে তুলছি। শুধু সেই আকাঙ্খিত মুহূর্তের কথা ভেবে আমার চুল এখনও সোজা হয়ে যায়। লক্ষ্যাধিক আর্জেন্তিনীয় সমর্থককে সুখী করতে চাই। তাই সেই স্বপ্নপূরণ না হওয়া পর্যন্ত অবসর নিচ্ছি না।’

এবার আর্জেন্টিনাকে যদি বিশ্বকাপ ছাড়াই দেশে ফিরতে হয় সেক্ষেত্রে কাতারে ২০২২-এর বিশ্বকাপের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে মেসিকে। তখন তার বয়স হবে ৩৫ বছর! কিন্তু বয়সের দিকে তাকাচ্ছেন না অধিনায়ক। বরং তার মুখে স্বপ্নপূরণের কথা। বলেছেন, ‘আমি প্রায় সমস্ত বড় টুর্নামেন্ট জিতেছি। উন্মুখ হয়ে আছি, বিশ্বকাপ জিতে শেষটাও মধুর করতে।’

সাম্পাওলির সঙ্গে জন্মদিনের শুভেচ্ছা বিনিময় হলেও উপস্থিত সাংবাদিকদের চোখ এড়ায়নি যে, প্র্যাক্টিস শুরু হওয়ার পর থেকে সাম্পাওলির সঙ্গে মেসি আর কথা বলেননি!

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here