সচরাচর বাস বা ট্রেন বা সিগন্যালে দাড়িয়ে থাকা গাড়ির মাঝে কিছু মানুষকে ভিক্ষা করতে দেখা যায়। তাই বলে বিলাসবহুল ফ্লাইটে কিনা ভিক্ষাবৃত্তি।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট হয় , যেখানে দেখা যাচ্ছে ফ্লাইটের মধ্যেই হঠাৎ এক ব্যক্তি হাতে একটি প্লাস্টিক নিয়ে সহযাত্রীদের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন। কেবিন ক্রুরা কিছু বুঝে ওঠার আগেই তিনি সহযাত্রীদের থেকে হঠাৎ ভিক্ষা চাওয়া শুরু করেন। প্রথমবার এমন অদ্ভুত ঘটনা দেখে সেই মুহূর্তেই ভিডিও করা শুরু করেন কয়েকজন সহযাত্রী।

ঘটনাটি ঘটে কাতারের রাজধানী দোহা থেকে ইরানের শিরাজ শহর যাওয়া একটি কাতার এয়ারওয়েজের ফ্লাইটে ।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে তথাকথিত ভিক্ষু ও কেবিন ক্রু উভয়েই ইরানি ও ফার্সি ভাষায় বাক্য বিনিময় করছিল। প্লেন করিডোরে এক মাঝবয়সী ব্যক্তি হাতে প্লাস্টিক ব্যাগ নিয়ে যাত্রীদের অনুনয় করছেন। যাত্রীরাও তার ভিক্ষার ব্যাগে টাকা দিচ্ছেন। আরও কয়েকজন টাকা হাতে নিয়ে অপেক্ষা করছিলেন। কিন্তু তার আগেই তাকে কেবিন ক্রুরা এসে বাধা দিলে তখনকার মতো থেমে যান।

কেবিন ক্রু রা পুনরায় সরে যেতেই আবার এক যাত্রী তাকে ডেকে কিছু টাকা হাতে গুঁজে দেন। ভিডিওটিতে দেখা যায় আবারও একাধিক এয়ার হস্টেস তাকে অনুরোধ করছেন নিজের আসনে ফিরে যাওয়ার জন্য।

ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই বিতর্কের ঝড় ওঠে। দোহা থেকে সিরাজ শহরের বিমানের ভাড়া বাংলাদেশি দুদ্রায় প্রায় ৬৫০০০ টাকা । সেই অর্থ খরচ করে যিনি বিমানে চড়েছেন তিনিই কিনা বিমানের সহযাত্রীদের থেকে সাহায্য চাইছেন। আর সহযাত্রীরাও তাঁকে নির্দ্বিধায় সাহায্য করছেন। ব্যক্তি আদতে একেবারেই দরিদ্র নন। কেনই বা তিনি বিমানে ভিক্ষা করছিলেন সে বিষয়েও জানা যায়নি ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here