এই অস্ট্রেলিয়া যে একদিনের ক্রিকেটে বর্তমানে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন, তার হিসাব কোনোভাবে মিলাতে পারছেন না পণ্ডিতরা। শেষ কবে অস্ট্রেলিয়াকে এত বিবর্ণ ও হতশ্রী অবস্থায় দেখা গেছে সেটিও গবেষণার বিষয়।

গতকাল ম্যানচেস্টারে সিরিজের পঞ্চম ও শেষ ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়াকে ১ উইকেটে হারিয়ে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা দিয়েছে ইংল্যান্ড। সিরিজটা তারা জিতেছে ৫-০ ব্যবধানে।

অবশ্য টস জিতে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়ার শুরুটা ছিল দুর্দান্ত। ছয় ওভার পেরুতে না পেরুতেই বিনা উইকেটে ৬০ রান তুলে ফেলেছিল তারা। ১২তম ওভারেও ২ উইকেটে ৯০ রান ছিল ওয়ানডের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। সেখান থেকে মঈন আলীর ঘুর্ণিতে (৪/৪৬) তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে অজিদের ইনিংস। ৪২ বলে ৯ বাউন্ডারিতে ৫৬ রান করে ফেরেন ওপেনার ট্রাভিস হেড।

সেঞ্চুরির পর বাটলার

দল উইকেট হারাতে থাকলেও অ্যালেক্স কারে ৪০ বলে করেন ৪৪ রান। আর শেষ পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়াকে টেনে নেন ডি’আরচি শর্ট। ৫২ বলে ৪ বাউন্ডারিতে ৪৭ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি।

২০৬ রানের মামুলি লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতেই বিনি স্ট্যানলেকের তোপে পড়ে ইংল্যান্ড। ২৭ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলে তারা, যার মধ্যে তিনটিই নেন অস্ট্রেলিয়ার দীর্ঘকায় এই পেসার। এরপর ১১৪ রানের মধ্যে ৮ উইকেট খোয়ানো দলকে বলতে গেলে একাই টেনেছেন জস বাটলার। ১২২ বলে শেষপর্যন্ত ১১০ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here