শুক্রবার (২৯ জুন) থেকে সারাদেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বেড়ে যেতে পারে। এছাড়া পরবর্তী ৭২ ঘন্টা বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে।

এদিকে আজ বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আশঙ্কায় অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরসমূহকে ১ নম্বর (পুনঃ) ১ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুছ বাসস’কে আজ এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটিভাবে সক্রিয় থাকায় আজ ও আগামীকাল বৃষ্টিপাত কম হবে।তবে আগামী ২৯ জুন থেকে মৌসুমী বায়ু জোরালোভাবে সক্রিয় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এসময় সারাদেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বেড়ে যেতে পারে। সেই সাথে বিজলী চমকানোসহ বজ্রপাতের সম্ভাবনাও রয়েছে।
নদীবন্দরসমূহের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হযেছে, রংপুর, রাজশাহী, পাবনা, বগুরা, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, সিলেট, ঢাকা, ফরিদপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার অঞ্চল সমূহের উপর দিয়ে দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘন্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

এসব এলাকার নদীবন্দর সমূহকে ১ নম্বর (পুনঃ) ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আজ সকাল ৬টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘন্টায় দেশে সর্বোচ্চ সাতক্ষীরা ৭১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘন্টায় আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও ঢাকা বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী, রংপুর, খুলনা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দম্কা হাওয়া ও বিজলী চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারী ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

এছাড়া সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here