ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার গুনবহা ইউনিয়নের কামারহেলা গ্রামে পরিবারের কাছে দাবিকৃত মোটরসাইকেল না পেয়ে নিজ শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যা করেছে ওমর মোল্লা (৩৫) নামে এক যুবক।

নিহত যুবক গুনবহা ইউনিয়নের কামারহেলা গ্রামের মো. আজিজার মোল্লার ছোট ছেলে। সে বিবাহিত এবং তার এক মেয়ে রয়েছে।

গত সোমবার বিকালে নিজ শরীরে পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় ওমর। এরপর গত বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

নিহতের বাবা আজিজার মোল্লা জানান, ওমর আমাকে একটি মোটরসাইকেল কিনে দিতে বলেছিল। ওই মোটরসাইকেল সে ভাড়ায় চালিয়ে সংসার চালাতে চেয়েছিল। কিন্তু অর্থের অভাবে আমি তাকে সেটি কিনে দিতে পারিনি।

তিনি জানান, ঢাকার একটি বেসরকারি কোম্পানিতে কাজ করতো ওমর। সেখানে ভালভাবে চলতে না পারায় বাড়িতে চলে আসে।

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জিারি বিভাগের চিকিৎসক স্বপন কুমার বিশ্বাস জানান, গত শুক্রবার ওমর মোল্লা শরীরের প্রায় ৭৫ শতাংশ দগ্ধ হয়ে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়। সে ঠিকমত শ্বাস-প্রশ্বাস নিতেও পারছিল না। সাথে সাথে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে স্থনান্তর করা হয়েছিল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here